এফএ কাপে চতুর্থ বিভাগের দলের কাছে ৩–০ গোলে হারল বিয়েলসার লিডস ইউনাইটেড।
এফএ কাপে চতুর্থ বিভাগের দলের কাছে ৩–০ গোলে হারল বিয়েলসার লিডস ইউনাইটেড।ছবি: রয়টার্স

ম্যাচের তখন নব্বই মিনিট। হঠাৎ দেখা গেল, ইংলিশ রিয়েলিটি টিভি শো তারকা মার্ক রাইট মাঠের পাশে অনুশীলন করছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই নামানো হলো তাঁকে। তবে গোটা নব্বই মিনিট ধরে ম্যাচের দর্শকেরা যেসব আশ্চর্য ঘটনার সাক্ষী হয়েছেন, তাতে মার্ক রাইটকে মাঠে নামতে দেখে আরও আশ্চর্য না হওয়ারই কথা। মার্ক রাইটের দল, চতুর্থ বিভাগে খেলা ক্রলি টাউন যে ততক্ষণে ৩-০ গোলে এগিয়ে আছে প্রিমিয়ার লিগে আলোড়ন তোলা লিডস ইউনাইটেডের বিপক্ষে!

ইংলিশ ফুটবলে এফএ কাপের তৃতীয় রাউন্ডের কয়েকটি খেলা ছিল গত রাতে। নিজ নিজ ম্যাচে জিতে অনায়াসে পরের রাউন্ডে পা রেখেছে ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি ও টটেনহামের মতো বড় বড় ক্লাবগুলো। কিন্তু অঘটনের শিকার হয়েছে এই মৌসুমেই আলোচনার জন্ম দেওয়া লিডস ইউনাইটেড। চতুর্থ বিভাগের দল ক্রলি টাউনের বিপক্ষে হেরে বসেছে তারা, তা–ও আবার ৩-০ গোলে! মার্সেলো বিয়েলসার আলোচিত ফুটবলীয় দর্শনকে এভাবে চতুর্থ বিভাগের এক ক্লাবের ক্লাছে মুখ থুবড়ে পড়তে হবে, এটা হয়তো পাঁড় ক্রলি ভক্তরাও ভাবেননি!

default-image

লিডস হেরে বসলেও প্রিমিয়ার লিগের বাকি শক্তিশালী দলগুলো কিন্তু অঘটনের শিকার হয়নি। আগের দিন লিভারপুলই যেমন অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ৪-১ গোলে জিতেছে। লিভারপুলের পথ ধরে জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি ও টটেনহাম হটস্পারের মতো বড় দলগুলো।

বিজ্ঞাপন

স্কট ম্যাকটমিনের গোলে ওয়াটফোর্ডকে ১-০ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ম্যানচেস্টার সিটির জয়টা অবশ্য আরও বড়। ৩-০ গোলে বার্মিংহাম সিটিকে হারিয়েছে তারা। প্রথমার্ধেই পর্তুগিজ উইঙ্গার বের্নার্দো সিলভা (২) ও ফিল ফোডেন (১) গোল করে ম্যাচের ভাগ্য লিখে দেন। ওদিকে মোরেকাম্বের বিপক্ষে চেলসির জয়টা ৪-০ গোলের। গোল করেছেন দুই জার্মান তারকা টিমো ভেরনার ও কাই হাভের্টজ এবং দুই ইংলিশ তারকা মেসন মাউন্ট ও ক্যালাম হাডসন-অদয়।

তবে আলোচনার জন্ম দিয়েছে মেরিন। লিভারপুল-এভারটনের এলাকা মার্সিসাইডের এই ক্লাবটা খেলে অষ্টম বিভাগে। তারাই নেমেছিল জোসে মরিনিওর টটেনহামের বিপক্ষে। করোনাভাইরাসের কারণে মাঠে দর্শক ঢুকতে না দেওয়ার কারণে অনেক ক্ষতির মুখে পড়া এই পুঁচকে ক্লাবটাকে ইংলিশ ফুটবলের বড় বড় অনেক ক্লাবই সাহায্য সহযোগিতা করেছে যথাসাধ্য।

default-image

নিজের পাড়ার ‘ছোট ভাই’ এই ক্লাবকে ম্যাচজুড়ে স্পনসর করে গিয়েছে লিভারপুল কিংবদন্তি জেমি ক্যারাঘারের ফাউন্ডেশন। প্রায় ৩৫ হাজারেরও বেশি ভার্চ্যুয়াল টিকিট বিক্রি হয়েছে, যার অধিকাংশই কিনেছেন টটেনহামের সমর্থকেরা। ফলে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে না ক্লাবটিকে। ম্যাচ শেষে টটেনহামের নামের পাশে ৫-০ গোলের জয় লেখা থাকলেও এই ম্যাচটা আলোচিত হচ্ছে ছোট্ট একটা ক্লাবকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্ত থেকে উদ্ধার করার জন্য ইংলিশ ফুটবল সমাজের এমন উদারতার জন্য। টটেনহামের হয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার কার্লোস ভিনিসিউস, একটি করে গোল ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার লুকাস মউরা ও ইংলিশ তরুণ আলফি ডিভাইনের।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন