বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চ্যাম্পিয়নশিপ আর অবনমন নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় প্রিমিয়ার লিগের সেই উত্তেজনা আর নেই। তবে ব্যক্তিগতভাবে কয়েকজন খেলোয়াড় নিয়ে সমর্থকদের আগ্রহ আছে। এদের মধ্যে কিংসলি অন্যতম। আরেকজন কাতার প্রবাসী ফুটবলার ওবায়দুর রহমান।

জোড়া গোল করে কিংসলি বুঝিয়ে দিয়েছেন ১ থেকে ১৩ অক্টোবর মালদ্বীপে অনুষ্ঠেয় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুত আছেন তিনি। আজকের জোড়া গোলের পর এএফসি থেকে তাঁর খেলার ছাড়পত্র পাওয়ার ব্যাপারে এখন জোর দৌড়ঝাঁপ শুরু করতে হবে বাফুফেকে।

default-image

লিগের দ্বিতীয় পর্বে বসুন্ধরায় নাম লেখানোর পর আজ অভিষেক হয়েছে ওবায়দুরের। একজন খেলোয়াড়কে প্রথম ম্যাচে দেখেই তাঁর মান বিচার করা কঠিন। কাঁদা মাঠে তো আরও নয়। তবে এতটুকু বলাই যায় বলের ওপর ভালো দখল আছে এই উইঙ্গারের। শারীরিকভাবেও তিনি বেশ শক্তিশালী।

টানা ৬ ম্যাচ জয়ের অনুপ্রেরণা নিয়ে আজ বসুন্ধরার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল সাইফ। বিদেশি ছাড়াই আজ খেলেছে তারা। প্রথমার্ধে সমান তালে লড়াই করতে পারলেও দ্বিতীয়ার্ধে আর পেরে উঠতে পারেনি । দুটি সহজ গোলের সুযোগ নষ্ট করার খেসারতও দিতে হয়েছে তাদের।

ম্যাচের ৩ টি গোলই দ্বিতীয়ার্ধে। ৫৪ মিনিটে কিংসলির গোলে এগিয়ে যাওয়া। নিজেদের অর্ধে জামাল ভূঁইয়ার পা থেকে বল কেড়ে নিয়ে উপরে উঠে স্বদেশী রবসনকে বাড়িয়ে দেন মিডফিল্ডার জোনাথন ফার্নানদেজ। ততক্ষণে বক্সের মধ্যে ফাঁকা জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন কিংসলি। জায়গা মতো পাস দিতে কোনো ভুল করেননি রবসন। বক্সের মধ্যে থেকে বাম পায়ের জোরালো শটে গোলটি করেছেন কিংসলি।

default-image

৬৩ মিনিটে কিংসলির পান নিজের আর দলের দ্বিতীয় গোল। জোনাথনের আলতো চিপ থেকে বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে বক্সের মধ্যে ঢুকে এগিয়ে আসা গোলকিপারে পাশ দিয়ে গোলটি করেন তিনি। লিগে এটি কিংসলির তৃতীয় গোল।

আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকার রাউল বেসেরার জায়গায় ‘নাম্বার নাইন’ হিসেবে আজ খেলানো হয়ে কিংসলিকে। নিজের পছন্দের জায়গায় সুযোগ পেলে সে যে আলো কেড়ে নিতে পারবেন, সেটিই আজ প্রমাণ করেছেন।

৮০ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান রসায়নে ৩-০ করেছেন রবসন। এই গোলের অনেকাংশে কৃতিত্ব দিতে হবে জোনাথনকে। গতি ও বলের নিয়ন্ত্রণে প্রতিপক্ষকে রক্ষণভাগকে বোকা বানানোর কাজটি করে গোলমুখে রবসনকে বল ঠেলে দেন জোনাথন। রবসন শুধু দেখে শুনে বলটি জালে রেখেছেন।

এই জয়ে ২২ ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরার। ২৪ ম্যাচে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে চারে থেকে লিগ শেষ করল সাইফ।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন