জামাল ভুঁইয়ার সঙ্গে ছবি তুলতে আজ মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন এই দর্শক
জামাল ভুঁইয়ার সঙ্গে ছবি তুলতে আজ মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন এই দর্শকপ্রথম আলো

বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার সঙ্গে সেলফি তুলতে আজ মাঠে দর্শকের ঢুকে পড়া যেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) দুর্বল ব্যবস্থাপনারই প্রতীকী চিত্র। করোনাকালে মাঠে ফুটবল ও দর্শক দুই-ই ফেরাতে পারলেও বাফুফে পুরোপুরি ব্যর্থ করোনাকালের দাবি মেটাতে। বিশ্বের যেসব দেশে করোনার মধ্যে ফুটবল হচ্ছে, তারা স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপারে যে রকম কঠোর, তার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি বাফুফের মধ্যে।

বাংলাদেশ-নেপাল মুজিব বর্ষ সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ছিল না স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। মাঠে সর্বোচ্চ ৮ হাজার দর্শকের খেলা দেখার কথা থাকলেও ছিলেন ১২ হাজারের বেশি দর্শক। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে গায়ে গা লাগিয়ে খেলা দেখেছেন তাঁরা। অনেকের মুখে ছিল না মাস্কও। আজ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচেও পরিস্থিতি ছিল একই রকম।

বিজ্ঞাপন

আজকের ম্যাচে স্বাস্থ্যবিধি মানার ওপর জোর দেওয়ার কথা বলেছিল বাফুফে। বলা হয়েছিল, ৮ হাজারের বেশি দর্শক মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন না। দর্শক ঠেকাতে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তাকর্মীও। কিন্তু আজকের অবস্থা বরং আরও ভয়াবহ। গ্যালারির বেশির ভাগ অংশ ফাঁকা পড়ে থাকলেও দর্শকেরা বসেছেন সামাজিক দূরত্ব না মেনেই। যথারীতি মাস্ক নেই অনেকেরই মুখে।

default-image

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ঘটল আরও বড় অঘটন। স্টেডিয়ামের পূর্ব গ্যালারি থেকে মাঠে ঢুকে পড়েন এক দর্শক এবং তার মুখেও ছিল না মাস্ক। সরাসরি মাঠের দক্ষিণ পাশের মাঝামাঝি এসে মুঠোফোনে বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার সঙ্গে সেলফি তোলার চেষ্টা করেন তিনি। পরে নিরাপত্তাকর্মীরা তাঁকে মাঠ থেকে বের করে নিয়ে আসেন। নিরাপত্তাকর্মীরা জানিয়েছেন, হাসিব নামের ওই দর্শককে পুলিশি হেফাজতে দেওয়া হয়েছে।

default-image

নতুন স্বাভাবিকতায় দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রথম মাঠে দর্শক ফেরাল বাংলাদেশ। স্বাস্থ্যবিধি মানতে পারলে বিষয়টি প্রশংসা পেতে পারত। কিন্তু দুটি ম্যাচেই গ্যালারিতে দর্শকদের অবাধ প্রবেশ প্রশ্ন তুলে দিয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপারে বাফুফের উদ্যোগ নিয়েই।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0