‘পুঁচকে’ হোলস্টাইনের কাছে হেরে গেল বায়ার্ন মিউনিখ
‘পুঁচকে’ হোলস্টাইনের কাছে হেরে গেল বায়ার্ন মিউনিখছবি: রয়টার্স

ডেভিড আর গোলিয়াথের গল্পের মঞ্চায়নই যেন হলো গতকাল রাতে। ওই যে সেই গল্প, যেখানে ছোট্ট ছেলে ডেভিডের হাতে বধ হয় গোলিয়াথ নামের এক দৈত্য। জার্মান কাপে বায়ার্ন মিউনিখ কাল হেরে গেছে দ্বিতীয় বিভাগের দল হোলস্টাইন কিলের কাছে। হোলস্টাইন যদি ডেভিড হয় বায়ার্ন তো গোলিয়াথের মতোই শক্তিধর। এই হারে ২০০০ সালের পর জার্মান কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় নিল চ্যাম্পিয়নস লিগ বিজয়ীরা।

টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলে হেরেছে বুন্দেসলিগায় শীর্ষে থাকা বায়ার্ন। নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের খেলা ছিল ২-২ গোলে অমীমাংসিত। ম্যাচে দুবার এগিয়েও গিয়েছিল বায়ার্ন। কিন্তু কাল যে হোলস্টাইনের ওপর অন্য রকম কিছু ভর করেছিল! ম্যাচের ১৪ মিনিটে সার্জ নাবরির গোলে এগিয়ে গিয়েছিল বায়ার্ন। কিন্তু লিগের শীর্ষ দল হলেও এবার বায়ার্নের রক্ষণভাগকে বেশ ভঙ্গুরই মনে হচ্ছে। বুন্দেসলিগাতেও ১৫ ম্যাচ শেষে ১৯৮১ সালের পর সবচেয়ে বেশি গোল হজম করেছে তারা। সেই রক্ষণ দুর্বলতাই কাল ভুগিয়েছে তাদের। ৩৭ মিনিটে হোলস্টাইন সমতা ফেরায় ফিন বার্টেলসের গোলে। বায়ার্ন রক্ষণসেনা নিকলাস সুলাকে রীতিমতো নাকাল করেই গোলটি করেন তিনি।

default-image
বিজ্ঞাপন

৪৮ মিনিটে লিরয় সানের গোলে বায়ার্ন আবারও এগিয়ে যায়। ফ্রি কিক থেকে গোলটি করেন তিনি। হোলস্টেন অবশ্য বারবারই হানা দিয়েছে বায়ার্নের রক্ষণে, সুযোগও তৈরি করেছে। বায়ার্নের পক্ষেও গোলের ভালো সুযোগ নষ্ট করেন টমাস মুলার। জামাল মুসিয়ালার একটি শট লাগে পোস্টে। হোলস্টাইন স্কোরলাইন ২-২ করে ম্যাচের যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে। হাউকা বাহল হেড করে গোল করে ম্যাচ নিয়ে যান অতিরিক্ত সময়ে।

টাইব্রেকারে হোলস্টাইনের মতো দলের খেলোয়াড়েরা মাথা ঠান্ডা রেখেছিলেন। বায়ার্নও অভিজ্ঞতার পূর্ণ সদ্ব্যবহারই করছিল। দুই দলই নির্ধারিত পাঁচটি শটের প্রতিটিতেই বল জালে রেখেছিল। কিন্তু বায়ার্নের মার্ক রোকা মিস করেন সাডেন ডেথে। হোলস্টাইনের বার্টেলস গোল করলে নিশ্চিত হয়ে যায় জার্মান সুপার কাপ থেকে বায়ার্নের বিদায়। ডেভিডের গোলিয়াথ-বধও।

default-image

ম্যাচ শেষে নিজেদের ব্যর্থতা মেনে নিয়েছেন মুলার। তবে বলেছেন, ম্যাচ জেতার জন্য যা যা করার, সবকিছুই তাঁরা করেছেন, ‘আমরা ম্যাচটা হেরেছি তুলনামূলক দুর্বল হোলস্টাইনের কাছে। কিন্তু ম্যাচ জেতার জন্য যা যা করার, সবকিছুই আমরা করেছি। আমাদের ভুলগুলোই সদ্ব্যবহার করেছে হোলস্টাইন।’

প্রতিপক্ষকে সম্মান দিয়েও মুলারের মতে ম্যাচটা তাদেরই জেতা উচিত ছিল, ‘হোলস্টাইনকে শ্রদ্ধা করেই বলছি, ম্যাচটা আমাদের জেতা উচিত ছিল। তবে প্রতিপক্ষ বেশ ভালো খেলেছে। আমরা সুপার কাপ থেকে বিদায় নিলাম, যেটি মেনে নেওয়া খুব কষ্ট।’

মন্তব্য করুন