default-image

লুইস সুয়ারেজ, জোয়াও ফেলিক্স, আনহেল কোরেয়া কিংবা মার্কোস ইয়োরেন্তের কারণে তেমন সুযোগ পান না দিয়েগো কস্তা। স্প্যানিশ স্ট্রাইকার সে কারণেই আতলেতিকো মাদ্রিদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তাঁর জায়গায় একজন নতুন স্ট্রাইকার তো দরকার। সে কারণেই লিগ প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদানের দেশ ফ্রান্সের ক্লাব অলিম্পিক লিওঁর দিকে হাত বাড়িয়েছেন আতলেতিকো কোচ ডিয়েগো সিমিওনে। দলে আসছেন ফরাসি স্ট্রাইকার মুসা দেম্বেলে।

বহুদিন ধরেই বড় বড় ক্লাবের নজরে ছিলেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার। স্কটিশ ক্লাব সেল্টিকের পর লিওঁর হয়ে আলো ছড়ানো এই তারকার সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড, জুভেন্টাস কিংবা এসি মিলানের মতো ক্লাবের নাম জড়িয়েছে। কিন্তু শেষমেশ লিওঁতেও থাকতে হয়েছে তাঁকে। এবার আতলেতিকোই তাঁর দিকে ভালোভাবে হাত বাড়িয়েছে, কস্তা যাওয়ার পর।

বিজ্ঞাপন
default-image

মাদ্রিদভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এএস জানিয়েছে, আপাতত এক বছরের ধার চুক্তিতে আতলেতিকোয় খেলবেন দেম্বেলে। ধারের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে সাড়ে তিন কোটি ইউরোর বিনিময়ে পাকাপাকিভাবে দেম্বেলেকে দলে নেওয়ার সুযোগ খোলা থাকবে আতলেতিকোর সামনে। এই এক বছরে সিমিওনের মন জয় করতে পারলে পাকাপাকিভাবে আতলেতিকোয় চলে আসবেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার। গত দুই মৌসুম মিলিয়ে ৪৭ গোল করা এই স্ট্রাইকার এই মৌসুমেই লিওঁতে তেমন সুযোগ পাচ্ছেন না ডাচ তারকা মেমফিস ডিপাইয়ের কারণে। আর সে সুযোগটাই নিতে চাচ্ছে আতলেতিকো।

default-image

মূল দলে সুয়ারেজ না খেললে এমনিতেই গোলের জন্য হা-পিত্যেশ করতে হয় আতলেতিকোকে। আর গোলই যদি নিয়মিত না আসে, তাহলে লিগ জেতা কীভাবে হবে? রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা, মূল দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর কেউই তেমন ফর্মে নেই এখন, লিগ জয়ের এটাই সবচেয়ে বড় সুযোগ আতলেতিকোর সামনে। নিয়মিত গোল না করতে পারলে সে স্বপ্নটাও মাঠে মারা যাবে। সিমিওনে সেটা হতে দেবেন কেন?
লিওঁর ক্রীড়া পরিচালক সাবেক ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার জুনিনিও এর মধ্যেই জানিয়েছেন, দেম্বেলের আতলেতিকোয় যাওয়া প্রায় নিশ্চিত, ‘মুসা আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিল। ও আমাকে বলল, লিওঁ ছাড়ার সময় চলে এসেছে। লিওঁকে ওর তেমন কিছু দেওয়ার নেই আর। আমরা এ বিষয়ে আতলেতিকোর সঙ্গে কথা বলছি। এখনো কিছুই নিশ্চিত হয়নি, কিন্তু দুই পক্ষেরই আগ্রহ আছে বেশ।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন