জেমি ডে কে ছাপিয়ে জামালের চোখ শিরোপায়

বিজ্ঞাপন
default-image
>আগামীকাল থেকে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হবে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ফিলিস্তিন

আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাওয়া বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্যের কথা আগেই জানিয়েছিলেন কোচ জেমি ডে। কিন্তু কোচকে ছাপিয়ে একেবারে সাফল্যের চূড়া শিরোপায় চোখ রাখছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। আজ টুর্নামেন্ট পূর্ববতী সংবাদ সম্মেলনে ব্যক্তিগত লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন জামাল।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আগামীকাল বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। শেষবার মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির কাছে হেরেই টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিলেন জামাল ভূঁইয়ারা। তারুণ্য নির্ভর দল নিয়ে আসলেও এবারও টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেবারিট র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৬তম ফিলিস্তিন। তবে চ্যাম্পিয়নদের হারিয়েই সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চান জামাল, ‘সবাই জানে ফিলিস্তিন অনেক কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে তাদের হারিয়ে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই।’

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হচ্ছে টুর্নামেন্টটি। স্বাভাবিকভাবে টুর্নামেন্টের মর্যাদা বেড়ে গিয়েছে। প্রথমবারের মতো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে পারলে হবে সোনায় সোহাগা, ‘আমরা শিরোপা জিততে চাই। বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকীর টুর্নামেন্ট জিততে পারলে দারুণ হবে। নিজেদের জন্যও খেলতে হবে ভালো।’

ছয় জাতি টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ছাড়া বাকিরা কোন মানের দল নিয়ে আসছে, তা নিয়ে শঙ্কা জাগছে। মরিশাস দলটির দিকে তাকালে তো রীতিমতো ‘কচিকাঁচার আসর’ বলে মনে হবে! এ ছাড়া ফিলিস্তিন ও সেশেলসও জাতীয় দল আনেনি। সেশেলসের খেলোয়াড়েরা না এলেও এসেছেন তাদের প্রতিনিধিরা। এখনো বুরুনডির কোনো প্রতিনিধি না আসায় বোঝা যাচ্ছে আফ্রিকার এ দলটি কেমন হতে পারে। দলগুলোর মান বিবেচনা করলে বাংলাদেশকে রাখা যায় ফেবারিট তালিকায়।

কিন্তু ডিসেম্বরে নেপালে অনুষ্ঠিত দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের মোড়কে জাতীয় দলের ভরাডুবি হওয়ায় কিছুটা শঙ্কাও আছে। সে ব্যর্থতা থেকে দল নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চান জামাল, ‘এসএ গেমসে আমরা ভালো করতে পারিনি। এ টুর্নামেন্টে আমাদের ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ আছে এবং আমাদের ঘুরে দাঁড়াতেই হবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন