বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

২০১৬ সালে এশিয়ান কাপের প্রাক্‌–বাছাইয়ে তাজিকিস্তানের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন নাসিরুল। এভাবে ডেকে এনে অনুশীলনে নামার আগেই বাদ দেওয়ায় বিব্রত নাসিরুল। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘ফোনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ডেকে এনে আমাকে কাল (মঙ্গলবার) হোটেলে ওঠানো হয়। পাসপোর্টও জমা নেওয়া হয়েছে। আজ (গতকাল) সকালে হুট করে বলে, আমি বাদ! অনুশীলনে নামার আগেই কীভাবে কাউকে বাদ দেওয়া হয়, বুঝলাম না! আমার জন্য এটা বিব্রতকর। এত দিন জাতীয় দলে খেলার পর বাফুফের কাছে থেকে এই ব্যবহার অপ্রত্যাশিত।’

default-image

শুধু নাসিরুল নন, একই ঘটনা ঘটেছে তরুণ ফয়সাল আহমেদ, মারাজ হোসেন, পাপন সিংসহ আরও কয়েকজন খেলোয়াড়ের ক্ষেত্রে। ৩৫ জনের প্রাথমিক তালিকা থেকে দল ২৬ জনে কমিয়ে আনা হয়েছে। তাই এভাবে বাদ পড়ার ঘটনা খুব একটা অপ্রত্যাশিত নয়। তবে এর মধ্যে দল নির্বাচন নিয়ে আলোচনা জমিয়ে দিয়েছে সন্ধ্যার এক ঘটনা।

default-image

আজ দুপুরে ২৬ জনের দল ঘোষণা করা হলেও সন্ধ্যায় আরও একজন খেলোয়াড় যোগ করা হয়েছে। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আবাহনী লিমিটেডের মিডফিল্ডার মোহাম্মদ হৃদয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে বাফুফে। অথচ আবাহনীর এই মিডফিল্ডার প্রথমে ৩৫ জনের প্রাথমিক তালিকাতেও ছিলেন না বলে শোনা গেছে। কারণ, তালিকায় থাকা খেলোয়াড়দের হোটেলে ডেকে আনা হয়েছিল। সেখানে ছিলেন না হৃদয়। তাই হুট করে তাঁর ডাক পাওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। হৃদয়ের ডাক পাওয়া প্রসঙ্গে জাতীয় দল ও আবাহনী ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপু বলেন, ‘কোচের চাহিদা অনুযায়ী তাঁকে দলে ডাকা হয়েছে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন