default-image

এবার ঘরোয়া ফুটবলে বিভিন্ন দলের হয়ে খেলছেন ছয়জন ব্রাজিলিয়ান। এদের মধ্যে যে দুজন একেবারেই নিজের জাত চেনাতে পারছিলেন না, তাঁদের একজন নিক্সন গিয়াহামে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আজ তাঁর পায়েই দেখা গিয়েছে ব্রাজিলিয়ান সুরভি ছড়ানো গোল। নিক্সনের একমাত্র গোলেই আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে হারিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। এই জয়ে প্রিমিয়ার লিগে পয়েন্টের খাতা খুলল মারুফুল হকের দল।

নিজেদের হোম ভেন্যু কুমিল্লার ভাষাশহীদ ধীরেন্দ্রনাথ স্টেডিয়ামে হার দিয়ে শুরু হয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং লিমিটেডের। সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছে তারা।

আগের ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডির বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছিল তারা। চট্টগ্রাম আবাহনীর একাদশে ফিরেছে তাদের নিয়মিত অধিনায়ক চার্লস দিদিয়ের। মধ্যমাঠে তাঁকে পেয়ে ভালো খেলতে পেরেছেন দলটির দুই ফরোয়ার্ড নিক্সন ও ম্যাথু চিনেদুর। ওদিকে আরামবাগ খেলেছে তাদের দুই বিদেশি ছাড়াই। একাদশে ছিলেন না ঘানার ফরোয়ার্ড এডামস সাদিক ও মিডফিল্ডার ইব্রাহিম মরো। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, চোট কেড়ে নিয়েছে তাঁদের।

বিজ্ঞাপন

দুই বিদেশি ছাড়া স্থানীয় তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে প্রথম ম্যাচের তুলনায় অনেক ভালো খেলেছে আরামবাগ। আগের ম্যাচে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে ৩-০ গোলে হারা আরামবাগের হয়ে আজ লড়াকু ফুটবল উপহার দিয়েছে নিহাত জামান উচ্ছ্বাস, মুরাদ হোসেনরা।

শুরুতে এগিয়ে যেতে পারত আরামবাগই। ১০ মিনিটে নাইজেরিয়ার স্ট্রাইকার সিজোবা ক্রিস্টোফারের শট সাইড পোস্টে লেগে ফিরে আসে। অবশ্য এরপর বলের দখল ও গোলের সুযোগে এগিয়ে আবাহনীই। ১৬ মিনিটে নিক্সনের রক্ষণচেরা পাস থেকে সুযোগ এসেছিল ম্যাথুর সামনে। কিন্তু বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেননি নাইজেরিয়ান এই স্ট্রাইকার। ৩০ মিনিটে এ দুজনের রসায়নেই এসেছে ম্যাচের একমাত্র গোল।

প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারকে তাড়া করে বল কেড়ে নিয়ে নিক্সনকে পাস দিয়েছিলেন ম্যাথু। নিক্সন দেখিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান নিয়ন্ত্রণ ও ফিনিশিং। প্রথম স্পর্শে ঊরুতে বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন, দ্বিতীয় স্পর্শে সাইড ভলিতে জড়িয়েছেন জালে। বাকি সময় আরামবাগের খেলায় লড়াইয়ের ঝাঁজ থাকলেও সমতায় ফেরার মতো খেলতে পারেনি। উল্টো ৭৬ মিনিটে দুর্দান্ত সেভ করে দলকে আরেক গোল থেকে বাঁচিয়েছেন গোলরক্ষক আবুল কাশেম।

default-image

ওদিকে চলতি মৌসুমে আজ প্রথমবারের মতো ঢাকার বাইরে অনুষ্ঠিত হলো প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ। কিন্তু হোম ভেন্যুতে হার দিয়ে শুরু মোহামেডান স্পোর্টিং লিমিটেডের। সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছে তারা।

কুমিল্লার নাম শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে জাতীয় দলের সাবেক মিডফিল্ডার বাদল রায়ের কথা। নভেম্বরে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছেন মোহামেডান ক্লাবের ইতিহাসের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার বাদল। আজ তাঁর শহরে খেলছে তাঁর দল। ম্যাচ শুরুর আগে প্রয়াত বাদল রায়ের স্মরণে পালন করা হয় এক মিনিট নীরবতা। আজ মোহামেডান জিততে পারলে উপলক্ষের মাহাত্ম্য বেড়ে যেত অনেক!

বিজ্ঞাপন
default-image

কিন্তু জমজমাট ম্যাচে হারতে হয়েছে মোহামেডানকে। প্রথমার্ধেই দুই গোলে এগিয়ে যায় সাইফ। দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান কমিয়েছে মোহামেডান। সাইফের একটি করে গোল আরিফুর রহমান ও জন ওকোলির। মোহামেডানের গোলটি তাদের অধিনায়ক ঊরু নাগাতার।

৪৪ মিনিটে উইঙ্গার আরিফুরের গোলটি ছিল দুর্দান্ত। বক্সের মধ্যে আরিফুরকে পাস দিয়েছিলেন ইকেচুকু। বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মোহামেডান রাইটব্যাক আতিকুজ্জামানকে ইনসাইড-আউটসাইড ডজে ঘোল খাইয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেছেন আরিফুর, ১-০। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ব্যবধান বাড়িয়েছেন নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার ওকোলি। বক্সের মধ্যে থেকে জোরালো শটে গোলটি করেছেন তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া ছিল মোহামেডান। ৬০ মিনিটে আসে নাগাতার গোলটি। হাবীবুর রহমানের ফ্রি কিকে জাপানি মিডফিল্ডার নাগাতা হেডে বল জালে জড়ান। এতে ম্যাচটি জমে উঠলেও আর গোল পায়নি কোনো দলই।
২৪ জানুয়ারি শেখ রাসেলের বিপক্ষে মোহামেডান ও চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে পরবর্তী ম্যাচে মাঠে নামবে সাইফ। দুটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন