তাঁকে আর ধরে রাখা গেল না

বিজ্ঞাপন
default-image

বিষয়টি ওপেন সিক্রেট হয়ে ছড়িয়ে পড়েছিল সব খানে। প্রায় এক বছরের বেশি সময়জুড়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের অধীনে লিভারপুলে খেলার ইচ্ছের কথা জানিয়েছেন টিমো ভেরনার। কিন্তু দুই সপ্তাহ আগে গল্পটা পাল্টে গেল। হঠাৎ খবর রটল লিভারপুল নয়, চেলসিতে যাচ্ছেন ভেরনার। জার্মান এই ফরোয়ার্ড চেলসিতে যাওয়ার জন্য চ্যাম্পিয়নস লিগের বাকি ম্যাচগুলোতে লাইপজিগের হয়ে আর মাঠে না নামার সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলেছেন বলে খবর ছড়িয়ে পড়েছিল। আজ সব গুঞ্জন সত্যি প্রমাণিত হলো। আগামী মৌসুমে চেলসির নীল জার্সিতেই দেখা যাবে ভেরনারকে।

২০ বছর স্টুটগার্ট থেকে জার্মানির লিগের নতুন শক্তি আরবি লাইপজিগে যোগ দিয়েছিলেন ভেরনার। চার মৌসুমেই ৯৩ গোল করে জার্মানির সেরা স্ট্রাইকার বনে গেছেন। এ মৌসুমে ৩২ গোল করা ভেরনারের দিকে নজর ছিল বায়ার্ন মিউনিখের। রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনাও অতীতে এই স্ট্রাইকারকে দলে টানার কথা ভেবেছে। লিভারপুলে যাওয়ার ব্যাপারে তো দীর্ঘ আলোচনাও হয়েছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শেষ হাসি হেসেছে চেলসি। আজ চেলসির ওয়েবসাইটে এই জার্মান স্ট্রাইকার সরাসরি বার্তা দিয়েছেন ব্লুজ সমর্থকদের। ভিডিও বার্তায় বলেছেন, 'চেলসিতে যুক্ত হতে পেরে আমি আনন্দিত। এই বড় ক্লাবে যোগ দিতে পারা আমার জন্য গৌরবের বিষয়। আগামী মৌসুমে আমার নতুন সতীর্থ, নতুন ম্যানেজার এবং চেলসি সমর্থকদের সঙ্গী হওয়ার অপেক্ষায় আছি। সবাই মিলে দারুণ সফল এক ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য।'

গত মৌসুমে ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচকে দলে টানার পর আগামী মৌসুমের জন্য হাকিম জিয়েখ ও টিমো ভেরনারকেও নিশ্চিত করেছে চেলসি। দলটি তাই নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আশাবাদী হয়ে উঠতেই পারে। ভেরনারকে পেতে পুরো ৪৭.৫ মিলিয়ন পাউন্ড খরচ করছে চেলসি। সে সঙ্গে এই ফরোয়ার্ডকে সপ্তাহে ১ লাখ ৭০ হাজার পাউন্ড দেবে ক্লাবটি।

বিদায় নিলেও তাঁকে বড় তারকা বানানো সাবেক ক্লাবকে ধন্যবাদ দিয়েছেন ভেরনার, 'আমি অবশ্যই লাইপজিগকে ধন্যবাদ দিতে চাই। চারটি দুর্দান্ত বছর পাশে থাকার জন্য ক্লাব ও সমর্থকদের ধন্যবাদ। আমার হৃদয়ে সব সময় থাকবেন আপনারা।'

লাইপজিগও বিদায়বেলায় ভালোবাসা জানিয়েছে ভেরনারকে, 'টিমো ভেরনার এ মৌসুমের শেষে চেলসিতে যোগ দিচ্ছেন। পশ্চিম লন্ডন যাত্রায় তাঁর জন্য আমাদের শুভকামনা। আশা করি সে রাজধানীর আকাশে নীলদের পতাকা পতপত করে ওড়াবে।'

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন