default-image

ফর্মে থাকলে চুক্তি নিয়ে চিন্তা করতে হয় না। ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি থাকতে থাকতেই বিশাল অঙ্কের চুক্তি ও ট্রান্সফার ফি নিয়ে হাজির হয়ে যায় অন্যান্য ক্লাব।

কিন্তু ফর্ম না থাকলে? চুক্তি শেষ হয়ে গেলে বর্তমান ক্লাব যেমন চুক্তি নবায়ন করতে চায় না, অন্যান্য আগ্রহী ক্লাবেরও দেখা মেলে না।

কিছুদিন আগেই ইউরোপীয় ফুটবলের মৌসুম শেষ হয়েছে। যে মৌসুম শেষ হওয়ার কথা ছিল মে তে, করোনাভাইরাসের কারণে পিছিয়ে মৌসুম শেষ হয়েছে জুলাইয়ের একদম শেষদিকে। আর মৌসুম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চুক্তিহীন হয়ে পড়েছেন বেশ কিছু তারকা ফুটবলার। আবার কারওর চুক্তি শেষ হবে চলতি মাসের শেষদিনে। এখনো পর্যন্ত অন্যান্য ক্লাব তাঁদের প্রতি তেমন আগ্রহ দেখায়নি। আগামী মৌসুমে তাঁরা কোথায় খেলবেন, আদৌ খেলবেন কি না - অনিশ্চিত।

ফলে কার্যতই নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় পড়ে গেছেন তাঁরা। সাবেক ম্যানচেস্টার সিটি গোলরক্ষক, কিছুদিন আগেও ইংল্যান্ডের গোলবার সামলানো ২০১৪ বিশ্বকাপ খেলা তারকা জো হার্ট জানিয়েছেন, বার্নলির সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ার ফলে তিনি পরবর্তীতে কোথায় যাবেন, জানেন না। অবস্থা বেগতিক হলে হয়তো ফুটবল খেলাই ছেড়ে দেবেন।

করোনার কারণে এমনিতেই ক্লাবগুলো নতুন খেলোয়াড় দলে নেওয়ার ব্যাপারে বেশ সতর্কতা অবলম্বন করছে। মন্দার বাজারে খামোখা বাড়তি যেন খরচ না হয়, সে দিকে লক্ষ্য সবার। ফলে 'ফ্রি এজেন্ট' হিসেবে থাকা এসব তারকারা নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আরও চিন্তিত হয়ে পড়েছেন।

কারা তাঁরা? আসুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক!

থিয়াগো সিলভা (সর্বশেষ ক্লাব : পিএসজি) - ব্রাজিলের কিংবদন্তি এই সেন্টারব্যাক কিছুদিন পর হয়ে যাবেন ক্লাবহীন। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব এভারটন থিয়াগো সিলভার প্রতি আগ্রহী এমনটা শোনা গেলেও নিশ্চিতভাবে এখনো বলা যাচ্ছে না গত দশকের অন্যতম সেরা এই ডিফেন্ডার কোথায় খেলবেন আগামী মৌসুম
জো হার্ট (সর্বশেষ ক্লাব : বার্নলি) - কিছুদিন আগে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা প্রকাশ করেছিলেন এক বছর আগেও ম্যানচেস্টার সিটিতে খেলা এই তারকা। স্কটিশ ক্লাব সেল্টিক ও দ্বিতীয় বিভাগের ক্লাব ডার্বি কাউন্টি তাঁর প্রতি আগ্রহী, জানা গেছে
জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ (সর্বশেষ ক্লাব : এসি মিলান) - ইব্রাহিমোভিচের সঙ্গে এসি মিলানের চলতি চুক্তি কিছুদিনের মধ্যে শেষ হলেও বর্ষীয়ান এই স্ট্রাইকারের ফর্ম ও স্কোয়াডের ওপর তাঁর ইতিবাচক প্রভাব দেখে মিলান তাঁর সঙ্গে চুক্তি বৃদ্ধির কথা চিন্তা করছে
ডেভিড সিলভা (সর্বশেষ ক্লাব : ম্যানচেস্টার সিটি) - ম্যানচেস্টার সিটির ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই তারকাকে নেওয়ার ব্যাপারে এগিয়ে আছে ইতালির ক্লাব লাৎসিও
ইয়ান ভার্তোনে (সর্বশেষ ক্লাব : টটেনহাম হটস্পার) - টটেনহামের হয়ে প্রায় নয় বছর রক্ষণভাগ সামলানো বেলজিয়ামের এই পোড় খাওয়া ডিফেন্ডারকে দলে নিতে পারে ইতালির ক্লাব এএস রোমা
উইলিয়ান (সর্বশেষ ক্লাব : চেলসি) - ব্রাজিলের এই উইঙ্গারের সঙ্গে চেলসি চুক্তি বাড়াতে চাইছে। তবে সেটা মাত্র এক বছরের জন্য। উইলিয়ানের তাতে ঘোর আপত্তি। ৩১ বছর বয়সী এই তারকা চুক্তি চান কমপক্ষে তিন বছরের, যা চেলসি দিতে আগ্রহী নয়। ফলে এ সুযোগটাই নিতে চাচ্ছে আর্সেনাল, বার্সেলোনা ও টটেনহামের মতো ক্লাবগুলো। দৌড়ে এগিয়ে আছে আর্সেনালই
সার্জিও রিকো (সর্বশেষ ক্লাব : পিএসজি) - স্প্যানিশ এই গোলরক্ষককে দলে আনতে চাইছে ইতালির ক্লাব লাৎসিও
মারিও গোটশে (সর্বশেষ ক্লাব : বরুসিয়া ডর্টমুন্ড) - ২০১৪ বিশ্বকাপ ফাইনালের একদম শেষ মুহূর্তে গোল করে জার্মানিকে শিরোপা এনে দেওয়া এই তারকা এখন ক্লাবহীন। তবে সেভিয়া, মোনাকো, ফিওরেন্টিনা ও লস অ্যাঞ্জেলস গ্যালাক্সির মতো ক্লাবগুলো আগ্রহী তাঁর প্রতি
হোসে কায়েহন (সর্বশেষ ক্লাব : নাপোলি) - গত দশ বছরে নাপোলির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হোসে কায়েহন এর মধ্যেই ক্লাব ছেড়েছেন। তাঁকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে ভিয়ারিয়াল ও বেনেভেন্তো
জিয়াকোমো বোনাভেন্তুরা (সর্বশেষ ক্লাব : এসি মিলান) - নিজের সাবেক ক্লাব আতালান্তায় ফিরতে পারেন মিলানের নির্ভরযোগ্য এই মিডফিল্ডার
অ্যারন লেনন (সর্বশেষ ক্লাব : বার্নলি) - টটেনহাম হটস্পার ও এভারটনের সাবেক এই উইঙ্গারকে নতুন মৌসুমে দেখা যেতে পারে ১৬ বছর পর প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসা লিডস ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে
মালাং সার (সর্বশেষ ক্লাব : নিস) - বর্তমান সময়ে ফ্রান্সের অন্যতম প্রতিভাবান এই মিডফিল্ডার আর নিসের মতো মাঝারি মানের ক্লাবে থাকতে চাননি। যোগ দিতে চান বড় কোনো ক্লাবে। সারকে পাওয়ার দৌড়ে আছে আর্সেনাল, ফিওরেন্টিনা, আতালান্তা, তোরিনোর মতো ক্লাবগুলো
রায়ান ফ্রেজার (সর্বশেষ ক্লাব : বোর্নমাথ) - এক বছর আগেও বোর্নমাথের সেরা তারকা ছিলেন এই ফ্রেজার। এ বছর তেমন আলো ছড়াতে পারেননি, অবনমিত বোর্নমাথের হয়ে চুক্তি বৃদ্ধিও করেননি। ক্রিস্টাল প্যালেস, আর্সেনাল, লিভারপুলের মতো ক্লাবগুলো তাঁর ব্যাপারে বিভিন্ন সময়ে খোঁজখবর নিয়েছে
নিকোলাস গাইতান (সর্বশেষ ক্লাব : লিল) - বেনফিকার হয়ে আলো ছড়িয়ে এককালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়ার দ্বারপ্রান্তে চলে এসেছিলেন এই উইঙ্গার। এখনো আবারও ফিরতে পারেন পর্তুগালে, ব্রাগার হয়ে
লোইক রেমি (সর্বশেষ ক্লাব : লিল) - ফরাসি এই স্ট্রাইকার ইতালিয়ান ক্লাব বেনেভেন্তোতে যেতে চেয়েছিলেন, কিন্তু শারীরিক পরীক্ষায় পাশ করেননি। ফলে ভবিষ্যৎ নিয়ে এখনো ঘোর অনিশ্চয়তা তাঁর
ম্যাথিউ লংস্টাফ (সর্বশেষ ক্লাব : নিউক্যাসল ইউনাইটেড) - সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে দুই ম্যাচে দুই গোল করে চোখ কপালে তুলে দিয়েছিলেন ম্যাথিউ লংস্টাফ। যদিও শেষমেশ এই তরুণ তারকার সঙ্গে চুক্তি বাড়ায়নি নিউক্যাসল। ইতালিয়ান ক্লাব উদিনেসে ও ইংল্যান্ডের লিডস ইউনাইটেড আগ্রহী তাঁর প্রতি
এডিনসন কাভানি (সর্বশেষ ক্লাব : পিএসজি) - পিএসজি, নাপোলি ও পালের্মোর মতো ক্লাবে আলো ছড়ানো এই স্ট্রাইকার পাড়ি জমাতে পারেন পর্তুগালে। বেনফিকা আগ্রহী তাঁর প্রতি
উ লেই (সর্বশেষ ক্লাব : এসপানিওল) - চীনা এই তারকার কারণেই হু হু করে দেশটায় জনপ্রিয়তা বেড়েছিল স্প্যানিশ লিগের। মৌসুম শেষে সেই তারকাকেই খুঁজতে হচ্ছে নতুন ক্লাব

সেনাদ লুলিচ (সর্বশেষ ক্লাব : লাৎসিও) - ঘন ঘন ইনজুরিতে পড়ার কারণে হয়তো আর কিছুদিন পর চুক্তি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অবসর নিয়ে নেবেন লাৎসিওর অধিনায়ক সেনাদ লুলিচ
লুকাস বিলিয়া (সর্বশেষ ক্লাব : এসি মিলান) - বিশ্বকাপে খালে আর্জেন্টিনার এই মিডফিল্ডারের প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছে সেভিয়া ও রিয়াল বেতিসের মতো ক্লাবগুলো
এরা ছাড়াও আরও যাদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত -
ফাবিও বোরিনি (সর্বশেষ ক্লাব : হেলাস ভেরোনা)
জেফ হেনড্রিক (সর্বশেষ ক্লাব : বার্নলি)
কার্লোস সানচেজ (সর্বশেষ ক্লাব : ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড)
ওমর নিয়াসে (সর্বশেষ ক্লাব : এভারটন)
জ্যাক কোলব্যাক (সর্বশেষ ক্লাব : নিউক্যাসল ইউনাইটেড)
ক্যামেরন বর্থউইক জ্যাকসন (সর্বশেষ ক্লাব : ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড)
ক্রিস ব্রুন্ট (সর্বশেষ ক্লাব : ওয়েস্ট ব্রম)
স্কট ডান (সর্বশেষ ক্লাব : ক্রিস্টাল প্যালেস)
মিগুয়েল আনহেল ময়া (সর্বশেষ ক্লাব : রিয়াল সোসিয়েদাদ)
সামির উজকানি (সর্বশেষ ক্লাব : তোরিনো)
মিচেল ভর্ম (সর্বশেষ ক্লাব : টটেনহাম হটস্পার)
আন্দ্রেয়া বার্তোলাচ্চি (সর্বশেষ ক্লাব : সাম্পদোরিয়া)
রাগনার ক্লাভান (সর্বশেষ ক্লাব : ক্যালিয়ারি)
মার্টিন ক্যাসেরেস (সর্বশেষ ক্লাব : ফিওরেন্টিনা)
বোরহা ভালেরো (সর্বশেষ ক্লাব : ইন্টার মিলান)
জিয়ামপাওলো পাজ্জিনি (সর্বশেষ ক্লাব : হেলাস ভেরোনা)
গোরান পানদেভ (সর্বশেষ ক্লাব : জেনোয়া)
ভ্যালন বেহরামি (সর্বশেষ ক্লাব : জেনোয়া)
ফেদেরিকো মারচেত্তি (সর্বশেষ ক্লাব : জেনোয়া)
এরিক মাক্সিম চুপো মোতিং (সর্বশেষ ক্লাব : পিএসজি)
পাবলো জাবালেতা (সর্বশেষ ক্লাব : ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড)
নাথানিয়েল ক্লাইন (সর্বশেষ ক্লাব : লিভারপুল)
পেদ্রো লিওন (সর্বশেষ ক্লাব : এইবার)
হাতেম বেন আরফা (সর্বশেষ ক্লাব : রিয়াল ভায়াদোলিদ)
ফাকুন্দো রনকাগলিয়া (সর্বশেষ ক্লাব : ওসাসুনা)
ক্রিস্টিয়ান আনসালদি (সর্বশেষ ক্লাব : তোরিনো)

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0