নিষেধাজ্ঞার খড়্গ ঝুলছে ইব্রাহিমোভিচের ওপর।
নিষেধাজ্ঞার খড়্গ ঝুলছে ইব্রাহিমোভিচের ওপর।ছবি: রয়টার্স

‘অকালে’ই কি থেমে যাবে জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের ফুটবল ক্যারিয়ার? সুইডেনের পত্রিকা আফতোনব্লাদেতের প্রতিবেদন সত্যি হলে শঙ্কিত হতেই পারেন সুইডিশ তারকার ভক্তরা। পত্রিকাটি লিখেছে, তিন বছর নিষিদ্ধ হতে পারেন ৩৯ বছর বয়সী ফুটবলার। অভিযোগ মাল্টাভিত্তিক একটি বাজিকর প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ করেছেন ইব্রা।

আফতোনব্লাদেত জানিয়েছে, ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টায় নিবন্ধিত বেটহার্ড কোম্পানির ১০ শতাংশ শেয়ারের মালিক ইব্রার কোম্পানি আননোন এবি। সুইডিশ পত্রিকাটা আরও লিখেছে, সুইডেনের ফুটবল ফেডারেশন তিন বছর আগে থেকেই জানে ব্যাপারটা। ২০১৮ বিশ্বকাপে ইব্রা যে সুইডেনের জাতীয় দলে সুযোগ পাননি, তার পেছনে বড় কারণ নাকি এই বিষয়।

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা কিংবা ইউরোপীয় ফুটবল সংস্থা উয়েফার বিধিতে বাজিকর প্রতিষ্ঠানে খেলোয়াড়েরা বিনিয়োগ করতে পারেন না। নিয়ম ভাঙার জন্য বড় ধরনের শাস্তির বিধানও রয়েছে। বাজিকর প্রতিষ্ঠানের ইব্রা বিনিয়োগ করেছেন, প্রমাণিত হলে সুইডিশ তারকাকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ অথবা বড় অঙ্কের অর্থ জরিমানা করতে পারে ফিফা ও উয়েফা।

বিজ্ঞাপন
default-image

ফিফার নৈতিকতা বিধি অনুসারে বাজি ধরার বিধি ভাঙলে জরিমানা ও ফুটবল–সংশ্লিষ্ট কর্মকাণ্ড থেকে সর্বোচ্চ তিন বছরের নিষিদ্ধ হতে পারেন কোনো ফুটবলার। উয়েফার শাস্তির বিধানটা অবশ্য স্পষ্ট নয়।

আফতোনব্লাদেত লিখেছে, বাজিকর প্রতিষ্ঠান বেটহার্ডের চতুর্থ সর্বোচ্চ শেয়ারের মালিক ইব্রাহিমোভিচের কোম্পানি। ২০১৯ সালে প্রায় আড়াই কোটি ইউরো লাভের মুখ দেখা বাজিকর প্রতিষ্ঠানটি ২০১৮ সালে ইব্রাকে প্রতিষ্ঠানের দূত ও অন্যতম মালিক হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিল।

সুইডিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব হাকান শোসট্রান্ড অবশ্য ইব্রার সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সরাসরি কিছু বলতে রাজি হননি, ‘আমি সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ধারণাপ্রসূত কিছু বলতে রাজি নই। সবার আগে আমরা চাইছি ফিফার বিধি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেতে। বিধিগুলো যথেষ্ট জটিল ও অস্পষ্ট।’

default-image

বাজিকর প্রতিষ্ঠান বেটহার্ডের প্রধান নির্বাহী এরিক শার্পও ইব্রার ব্যাপারটা ঠেলে দিয়েছেন ফিফার কোর্টে, ‘এসব প্রশ্ন আমাদের না করে ফিফাকে জিজ্ঞেস করা উচিত। আমাদের জ্লাতানের সঙ্গে একটা সমঝোতা চুক্তি আছে, যেটি আমরা অনুসরণ করি কোনো ঝামেলা হলে দুই পক্ষ মিলেই সবকিছু সামলাব।’

ফিফা ও উয়েফা অবশ্য ইব্রাকে নিয়ে আফতোনব্লাদেতের প্রশ্নের উত্তর দিতে রাজি হয়নি। মন্তব্য করেননি ইব্রার এজেন্টও।

আগামী অক্টোবরে ৪০-এ পা দিতে যাওয়া ইব্রা এখন খেলছেন এসি মিলানে। ইতালিয়ান ক্লাবটির সঙ্গে তাঁর চুক্তির মেয়াদ ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত। অবসর ভেঙে সুইডেনের জাতীয় দলেও ফিরেছেন ইব্রাহিমোভিচ।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন