বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে সমতায় ছিল দুই দল। অতিরিক্ত সময়ও পেরিয়ে যাচ্ছিল। টাইব্রেকারে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছিল দুই দল। একদম শেষ মুহূর্তে জুভেন্টাসের রক্ষণভাগের ভুলের সদ্ব্যবহার করে গোল করেন ইন্টারের বদলি হয়ে নামা চিলি ফরোয়ার্ড সানচেজ।

ইন্টারের কোচ হয়ে আসার পর এটাই প্রথম শিরোপা জয় সিমোন ইনজাঘির। তবে সুপার কাপে জুভেন্টাসকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন ইনজাঘি। ২০১৭ ও ২০১৯ সুপার কাপে লাৎসিও কোচ হিসেবে শিরোপা জিতেছেন জুভেন্টাসের বিপক্ষে।

default-image

ফর্মে থাকা সানচেজ এ ম্যাচে ইনজাঘির একাদশে থাকার প্রত্যাশা করেছিলেন। ৭৫ মিনিটে লওতারো মার্তিনেজের বদলি হয়ে মাঠে নেমে জয়সূচক গোল এনে দেওয়ায় তাঁর আনন্দিত হওয়াই স্বাভাবিক। ম্যাচ শেষেও তার রেশ ফুটল সানচেজের কথায়, ‘ভেবেছিলাম একাদশের হয়ে মাঠে নামব। কারণ ফর্মে ছিলাম। তবে কোচকে আমি সম্মান করি। জেতার জন্য মরিয়া ছিলাম...নিজেকে খাঁচায় আটক সিংহের মতো মনে হয়েছে।’ এ মৌসুমে মাত্র চার ম্যাচে ইন্টারের একাদশে সুযোগ পেয়েছেন সানচেজ।

২৫ মিনিটে ওয়েস্টন ম্যাককেনির গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। প্রথমার্ধে দুই দলই রোমাঞ্চকর ফুটবল খেলেছে। গোল হজমের ১০ মিনিট পর খেলায় ফিরে আসে ইন্টার।

পেনাল্টি থেকে গোল এনে দেন আর্জেন্টাইন তারকা লওতারো মার্তিনেজ। বিরতির পর কৌশলী ফুটবলের আশ্রয় নেয় দুই দল। তাই খেলাটা আর রোমাঞ্চকর ছিল না। সিরি আ-তে সবশেষ আট ম্যাচেই জয় তুলে নেওয়া ইন্টার এই জয়ের মধ্য দিয়ে দারুণ ফর্ম ধরে রাখল।

default-image

অন্যদিকে ‘তুরিনের বুড়ি’খ্যাত জুভেন্টাসের জন্য মৌসুমটা ভালো যাচ্ছে না। লিগ টেবিলের পাঁচে থাকার পাশাপাশি কাল শিরোপা জয়ের সুযোগও হাতছাড়া করল জুভেন্টাস।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন