লাঁসের বিপক্ষে কড়া ট্যাকলের শিকার হয়েছেন নেইমার।
লাঁসের বিপক্ষে কড়া ট্যাকলের শিকার হয়েছেন নেইমার।ছবি: রয়টার্স

এ মৌসুমে এখনো ট্রেবল জয়ের স্বপ্ন দেখছে পিএসজি। লিগ আঁতে বহুদিন পর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। এক পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে আছে পিএসজি। ফ্রেঞ্চ কাপ ও চ্যাম্পিয়নস লিগে সেমিফাইনালে উঠেছেন নেইমাররা। কিন্তু ট্রেবল জেতার স্বপ্নটা এই সপ্তাহেই শেষ হয়ে যেতে পারে পিএসজির। মঙ্গলবার সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে খেলবে ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নরা। সেদিন প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে দুই গোলের ব্যবধানে জয় না পেলে বিদায় নিতে হবে ইউরোপ সেরার টুর্নামেন্ট থেকে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে নেইমারের খেলা দেখে হতাশই হয়েছেন সমর্থকেরা। প্রথম লেগে সিটির কাছে ঘরের মাঠে পিএসজি ২-১ গোলে হেরেছে। ম্যাচজুড়ে নেইমারের খেলা প্রশ্ন তুলে দিয়েছে। দ্বিতীয় লেগ সিটির মাঠে। পেপ গার্দিওলার দল আছে দুর্দান্ত ফর্মে। কিন্তু হারের আগে হারতে রাজি নন পিএসজি ফরোয়ার্ড নেইমার। দলের প্রয়োজনে মাঠের মধ্যে মরতেও রাজি আছেন এই ব্রাজিলিয়ান।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রথম লেগে তাঁর পারফরম্যান্সে সমালোচনার তির খুঁজে নিয়েছে নেইমারকে। তবে এসব সমালোচনা মোটেও গায়ে মাখছেন না তিনি। নেইমারের পুরো মনোযোগ এখন দ্বিতীয় লেগের খেলায়। কাল লাঁসের বিপক্ষে দলকে জেতানোর পর পিএসজির মিডিয়া চ্যানেলে বলেছেন, ‘আমাদের প্রথম কাজ হবে বিশ্রাম নেওয়া এবং এরপর সত্যিকার অর্থেই নতুন করে চ্যাম্পিয়নস লিগে মনোযোগ দিতে হবে।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম ম্যাচটা যে সহজ ছিল না, সেটা আগেও বলেছেন নেইমার। হারের পর ম্যাচ শেষে টুইটারে নেইমার লিখেছিলেন, ‘আমরা একটা লড়াইয়ে হেরেছি। কিন্তু আমাদের যুদ্ধ এখনো শেষ হয়নি। আমি বিশ্বাস করি, আমরা যেমন খেলেছি, এর চেয়েও ভালো খেলতে পারি।’

default-image

প্রথম লেগে র ম্যাচে ভালো না খেললেও আশা ছাড়ছেন না নেইমার, ‘ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে প্রথম লেগ বেশ কঠিন ছিল। পরিসংখ্যান কী বলছে বা আমাদের জয়ের শতকরা সম্ভাবনা কত, তা মাথায় না রেখে আমাদের বিশ্বাস রাখতে হবে।’ সমর্থকেরাও নেইমারদের পাশে থাকবেন, এমনটাই আশা তাঁর, ‘আমি মনে করি প্রত্যেক পিএসজি সমর্থকের আমাদের ওপর আস্থা রাখা উচিত। আমি সম্মুখসারিতে আছি এবং দলের জন্য সবার আগে লড়াইয়ের নামা সৈনিক আমি।’

পিএসজি চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের আশাতেই কিনে এনেছিল নেইমার-এমবাপ্পেকে। গতবার ফাইনালে উঠেও একটুর জন্য সে আশা পূরণ হয়নি পিএসজির। সে লক্ষ্য পূরণ করতে কতটা মরিয়া সেটা নেইমার জানিয়ে দিয়েছেন, ‘আমি নিজের সেরাটা উজাড় করে খেলব। এবং জয় ছিনিয়ে আনতে যা দরকার, সব করব। যদি মাঠে মারা যেতে হয়, তো তাতেও আমি প্রস্তুত।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন