আমাদ দিয়ালো কি তারকা হয়ে উঠতে পারবেন ইউনাইটেডে?
আমাদ দিয়ালো কি তারকা হয়ে উঠতে পারবেন ইউনাইটেডে?ছবি: টুইটার

স্যার আলেক্স ফার্গুসন দায়িত্ব ছাড়ার পর থেকেই লিগ জিততে পারছে না ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এক-দুই বছর করে লিগহীন অষ্টম বছরে পা রেখেছে দলটি।

ডেভিড ময়েস, লুই ফন গাল থেকে শুরু করে জোসে মরিনিও কিংবা এখনকার ওলে গুনার সুলশার, কেউই প্রত্যাশিত সাফল্য এনে দিতে পারছেন না ইউনাইটেডকে।

এ সময় ইউনাইটেডে আনহেল দি মারিয়া, রাদামেল ফালকাও, বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগার, আলেক্সিস সানচেজ কিংবা হুয়ান মাতার মতো তারকারা আসলেও, লাভ হয়নি তেমন।

চেয়ে চেয়ে সবচেয়ে বড় দুই প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল ও চেলসি এবং নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার সিটির সাফল্যই দেখে গেছে ক্লাবটি। ইউনাইটেড তাই এখন হন্য হয়ে এমন একজনকে খুঁজছে, যে কিনা দলে আসা মাত্রই আগের সেই সাফল্যসোপানে তুলতে পারে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে।

বিজ্ঞাপন

তিনি হতে পারেন রবিন ফন পার্সির মতো পরীক্ষিত তারকা, কিংবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর মতো কেউ। রোনালদো যাওয়ার পর থেকেই ‘নতুন রোনালদো’ খুঁজেই যাচ্ছে ইউনাইটেড।

রোনালদোর মতো পারফরম্যান্স পাওয়ার আশায় কত খেলোয়াড়কেই তো ৭ নম্বর জার্সি পরতে দিল ক্লাবটি, লাভ হলো কোথায়? তবে দলটির সাবেক তারতা রিও ফার্ডিনান্ডের কথা মানলে, পরবর্তী রোনালদো হয়তো পেয়েই গেছে ক্লাবটি।

রোনালদো যখন স্পোর্তিং লিসবন থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে এসেছিলেন, সেভাবে তারকা ইমেজ পাননি। সেই রোনালদোই পরে নিজের প্রতিভা আর পারফরম্যান্সের সুবাদে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন।

সম্প্রতি ইতালিয়ান ক্লাব আতালান্তা থেকে ১৮ বছর বয়সী এক আনকোরা তরুণ উইঙ্গার আমাদ দিয়ালোকে দলে ভিড়িয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

৩ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ডের (বাংলাদেশি হিসাবে প্রায় ৪২৬ কোটি টাকা) বিনিময়ে দলে আনা আইভোরি কোস্টের এ তারকাকে ঘিরেই স্বপ্ন বুনছেন ফার্ডিনান্ড, ‘আমরা সম্প্রতি আতালান্তা থেকে একজনকে কিনেছি, আশা করি সে কিছু একটা করে দেখাবে। আপনি যদি এই ছেলের ভিডিও দেখেন এবং এই ছেলেকে কেনার পেছনে কাজ করা ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে দেখেন, আপনার মনে হবে ইউনাইটেড এমন একজনকে কিনেছে, যার বিশ্বসেরা হওয়ার সামর্থ্য আছে। আমার মনে হয়, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কর্মকর্তারা এটাই ভাবছেন।’

দিয়ালোকে দেখে রোনালদোর কথাই মনে পড়ে যাচ্ছে ফার্ডিনান্ডের, ‘আমি এখনই ওর ওপরে নতুন রোনালদো হওয়ার চাপ দিতে চাই না। কিন্তু এটাও সত্যি কথা, আমরা যখন রোনালদোকে কিনলাম, পর্তুগালের কিছু মানুষ ছাড়া ওকে তখন কেউই চিনত না। এই ছেলেকেও অমনই মনে হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন