বান্ধবী নিয়ে ঝামেলায় ক্ষমা চাইতে খোলা চিঠি

ক্ষমা চেয়ে খোলা চিঠি লিখলেন ফিল ফোডেন
ক্ষমা চেয়ে খোলা চিঠি লিখলেন ফিল ফোডেনছবি: রয়টার্স
বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ড দলে অভিষেকের আনন্দের দিনে কী একটা ভুলই না করে ফেলেছেন ফিল ফোডেন ও ম্যাসন গ্রিনউড। আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-০ গোলে ম্যাচ জেতার পর হোটেল কক্ষে সময় কাটালেন বান্ধবীদের সঙ্গে। এতেই ঘনিয়ে এল বিপদ। করোনা-সংক্রান্ত জৈব সুরক্ষার নিয়ম ভাঙার দায় চাপল কাঁধে। অভিষেকের পরপরই বাদ পড়ে গেলেন ইংল্যান্ড দল থেকে। ম্যানচেস্টার সিটি ও ইউনাইটেডের এই দুই ফুটবলার এখন আক্ষেপে পুড়ছেন। ফোডেন তো ক্ষমা চেয়ে একটা খোলা চিঠিই লিখেছেন।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভালোই ঝামেলাই জড়িয়েছেন দুই তরুণ তারকা। বিষয়টা নিয়ে পুলিশি তদন্ত হবে। জরিমানাও করা হতে পারে। উয়েফা নেশনস লিগে আইসল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারানো ইংল্যান্ড দল চলে গেছে ডেনমার্কে। সেখানে তারা নিজেদের পরের ম্যাচটি খেলবে। কিন্তু ফোডেন ও গ্রিনউডকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ইংল্যান্ডে। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাঁদের। ইংল্যান্ডে গিয়ে টুইটারে একটি চিঠি লিখে নিজের কৃতকর্মের জন্য সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ফোডেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘটনার পর ফোডেন ও গ্রিনউডের ক্লাব আলাদা আলাদাভাবে বিবৃতি দিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে। ফোডেন ক্ষমা চেয়ে যে চিঠিটি লিখেছেন সেখানে ক্লাবের কথাও উল্লেখ করে দিয়েছেন, ‘আইসল্যান্ডে আমার কাণ্ড নিয়ে যে খবর এসেছে সেটার জন্য আমি ক্ষমা চাইছি। (ইংল্যান্ড কোচ) গ্যারেথ সাউথগেটের কাছে ক্ষমা চাইছি আমি। ক্ষমা চাইছি আমার ইংল্যান্ড দলের সতীর্থ, স্টাফ, সমর্থক, ক্লাব আর পরিবারের কাছে।’

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

২০ বছর বয়সী ফোডেনের ওপর অনেক আস্থা ছিল সাউথগেটের। মাঠে সেই আস্থার প্রতিদান দিলেও মাঠের বাইরে সেটা দিতে পারেননি। এই ভুলটা বুঝতে পেরেছেন ফোডেন। ক্ষমা চেয়ে লেখা চিঠিতে সেটাও উল্লেখ করেছেন, ‘গ্যারেথ যখন এই ম্যাচটির জন্য আমাকে দলে ডেকেছেন তখন খুব গর্ব হয়েছিল। ইংল্যান্ড দলের জার্সি পরতে পারাটা আমার জন্য দারুণ এক ব্যাপার। আমি এখনো বয়সে তরুণ। অনেক কিছুই এখনো শেখার বাকি। তবে আমার কাঁধে যে প্রচুর দায়িত্ব তা নিয়ে আমি সচেতন। আমি বাজে একটি কাজ করেছি এবং এই আচরণ আমার জন্য বেমানান ছিল।’

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এমন কাণ্ড করে দল থেকে বাদ পড়ায় দুঃখ পেয়েছেন ফোডেন, ‘আমি কোভিড-১৯-এর নিয়ম ভেঙেছি। এর কারণ হিসেবে ডেনমার্ক যাওয়ার সুযোগটা হারিয়েছি। এর জন্য খারাপ লাগছে। এই ভুল থেকে আমি মূল্যবান শিক্ষা নেব। গ্যারেথ এবং তাঁর দলের জন্য শুভকামনা রইল।’

ফোডেন ও গ্রিনউডের আচরণে হতাশ হয়েছেন ইংল্যান্ডের কোচ সাউথগেট। ডেনমার্কের বিপক্ষে ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘তারা নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছে এবং ক্ষমাও চেয়েছে। করোনাভাইরাসের নিয়ম ভেঙেছে ওরা। এখন সময়টা খুব জটিল, সেটা মাথায় রেখেই এগোতে হবে আমাদের। তারা যে পাপ করেছে ব্যাপারটা তা নয়। আমরা সঠিক পদক্ষেপই নেব।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন