গোটা ম্যাচে মেসিদের নাচিয়ে ছেড়েছেন ডেভিস।
গোটা ম্যাচে মেসিদের নাচিয়ে ছেড়েছেন ডেভিস।ছবি: এএফপি

গত পরশু বায়ার্ন মিউনিখের লেফটব্যাক আলফনসো ডেভিসের খেলা দেখে বার্সেলোনা সমর্থকদের মনে কি একটু হলেও চিনচিনে ব্যথা অনুভূত হয়েছে?

বিজ্ঞাপন

হতেই পারে। জর্ডি আলবার বহুদিন ধরে ফর্ম নেই। চ্যাম্পিয়নস লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে প্রায়ই হারিয়ে যান বার্সার এই লেফটব্যাক, চাপ সামলাতে পারেন না। ওদিকে ডেভিস কী ক্ষুরধার! আক্রমণের দিক দিয়ে হোক, বা রক্ষণের দিক দিয়ে। রক্ষণের সময় মেসিকে ঠিকঠাক আগলে রাখা থেকে শুরু করে আক্রমণে উঠে সেমেদো ভিদালদের চোখের পলকে ড্রিবল করে বোকা বানানো—সবই ডেভিস করেছেন অনায়াসে। ১৯ বছর বয়সী এই তরুণের খেলা দেখে বার্সা সমর্থকদের মনে হওয়াই স্বাভাবিক, ‘ইশ, আমাদের যদি এমন একটা লেফটব্যাক থাকত!’

মজার ব্যাপার হচ্ছে, চাইলে বায়ার্ন নয়, বার্সেলোনার জার্সি গায়ে মাঠে নামতে পারতেন আলফনসো ডেভিস। কিন্তু বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ তাঁকে কেনার সুযোগ নেননি। ইউরোপীয় সাংবাদিক লুইস ওমর তাপিয়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে জানিয়েছেন গল্পটা। বহু আগেই আলফনসো ডেভিসের প্রতিভা সম্পর্কে বার্তোমেউকে জানিয়েছিলেন দলটার সাবেক তারকা স্ট্রাইকার, বুলগেরিয়ার কিংবদন্তি রিস্টো স্টইচকভ। কিন্তু স্টইচকভের পরামর্শ কানে তোলেননি বার্তোমেউ। কেন তোলেননি জানেন?

বিজ্ঞাপন

তাপিয়া জানিয়েছেন, কানাডার খেলোয়াড় দেখে ডেভিসকে দলে নিতে চাননি বার্তোমেউ, ‘স্টইচকভের কাছ থেকে পরামর্শ শোনার পর বার্তোমেউর জবাব ছিল, “ও কানাডিয়ান খেলোয়াড়। থাক, ধন্যবাদ (দরকার নেই)।”’

বার্সেলোনার এই এক সিদ্ধান্তেই বায়ার্নের কপাল খুলে যায়। তারা দলে নিয়ে আসে ডেভিসকে। ডেভিসের ফর্মে মুগ্ধ হয়ে ২০২৫ সাল পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছে বায়ার্ন।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন