default-image
স্কাউটিং বিভাগের কার্যকারিতা বাড়ানোর জন্য বার্সেলোনা পুনর্গঠন-প্রক্রিয়া শুরু করেছে। আর এই পুনর্গঠন-প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ক্লাব থেকে বিদায় নিয়েছেন নেইমারকে খুঁজে বের করা স্কাউট

২০১৩ সালে নেইমারকে সান্তোস থেকে বার্সেলোনায় আনার পেছনে সবচেয়ে বড় হাত ছিল স্কাউট আন্দ্রে কুরির। সে স্কাউটকে পত্রপাঠ বিদায় করে দিয়েছে বার্সেলোনা।

কারণ হিসেবে জানানো হয়েছে, স্কাউটিং বিভাগে পুনর্গঠন-প্রক্রিয়ার কথা। ২০২১ সাল পর্যন্ত বার্সেলোনার সঙ্গে কুরির চুক্তি থাকলেও বিভাগের কার্যকারিতা বাড়ানোর বলি হতে হলো এই ব্রাজিলিয়ান স্কাউটকে। এক বিবৃতিতে ক্লাবটি জানিয়েছে, 'ক্লাবের পরিচালকমণ্ডলীর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্কাউটিং বিভাগে রদবদল আনা হচ্ছে। জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া বিচার-বিশ্লেষণের ফলাফল হিসেবে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। যাতে এই বিভাগের কার্যকারিতা আরও বৃদ্ধি পায়। এই সিদ্ধান্তের ফলে যুব দল থেকে মূল দল প্রতিক্ষেত্রে নিজেদের পরিকল্পনা ও কৌশলগত উৎকর্ষ বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করছে বার্সেলোনা।'

২০১৩ সালের কনফেডারেশনস কাপের পরেই ব্রাজিলের ক্লাব সান্তোস থেকে বার্সেলোনায় যোগ দেন নেইমার। তখন বলা হয়, নেইমারকে কিনতে বার্সার খরচ হয়েছে ৫৭ মিলিয়ন ইউরো।

এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি বার্সেলোনা আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তও নিয়েছে এদিন। ক্যাম্প ন্যু তে অবস্থিত ক্লাবের জাদুঘর ও আনুষ্ঠানিক দোকান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাঁরা, তবে অবশ্যই যথাযথ নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে।

লা লিগা শুরু হলে প্রথমেই নিজেদের মাঠে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হবেন মেসিরা। কোভিড-১৯ এর প্রকোপের কারণে সে ম্যাচে সমর্থকেরা সশরীরে উপস্থিত না থাকলেও বার্সেলোনা এমন ব্যবস্থা নিয়েছে, যাতে সমর্থকদের কাছে মনে হয় যে না, তাঁরা মাঠেই আছেন। ক্লাবের অফিশিয়াল স্টোর থেকে তাঁরা চাইলেই নিজেদের নাম ও নম্বর অঙ্কিত বিশেষ জার্সি কিনতে পারবেন, ম্যাচ চলাকালীন যে জার্সিগুলো গিয়ে মাঠের প্রত্যেকটি আসন সাজানো হবে। ম্যাচ শেষে সেসব জার্সি যার যার বাসায় পৌঁছে দেওয়া হবে। এভাবে সশরীরে উপস্থিত না থেকেও নিজেদের 'উপস্থিতি' জানান দেবেন ক্লাব-সমর্থকেরা। এ কারণে ১৫ হাজার জার্সি বিক্রি করবে বার্সেলোনা। প্রত্যেকটির দাম ধরা হয়েছে ৬৫ ইউরো করে। বাংলাদেশি হিসেবে যা ছয় হাজার টাকার কিছু বেশি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0