নেইমারকে ‘বানর’ বলে এখন তিনি মৃত্যুর হুমকি পাচ্ছেন

মাঠেই বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন নেইমার ও আলভারো গঞ্জালেস।
মাঠেই বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন নেইমার ও আলভারো গঞ্জালেস। ছবি: রয়টার্স
বিজ্ঞাপন

নেইমার-আলভারো গঞ্জালেস বিরোধের জল গড়ানো থামছেই না। মার্শেইয়ের স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ তুলেছেন নেইমার। এ তো পুরোনো খবর। নতুন খবর হলো, এ জন্য মৃত্যুর হুমকি পেয়েছেন গঞ্জালেস। পুলিশকে তা জানিয়েছে গঞ্জালেসের ক্লাব মার্শেই।

পিএসজি ফরোয়ার্ডের অভিযোগ সত্য কি না তা এখনো প্রমাণ হয়নি। যাচাই করতে বসেছে তদন্ত কমিটি। লিগ ওয়ানে গত রোববার রাতে পিএসজি-মার্শেই ম্যাচে নেইমারের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন আলভারো। তাঁর মাথার পেছনে চড় মেরে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন নেইমার। ম্যাচ শেষে নেইমার দাবি করেন মাঠে আলভারো তাঁকে উদ্দেশ্য করে বর্ণবাদী গালি দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শুরু থেকেই দুজনের মধ্যে খিটমিট লেগেই ছিল। বিরতির সময়ও নেইমারকে টিভিতে ‘বর্ণবাদ’ শব্দটি ব্যবহার করতে শোনা গেছে। তবে আসল মারামারি শুরু হয় একদম শেষ দিকে। যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে মার্শেইয়ের একটি গোল কিকের আগে নেইমার আর গঞ্জালেস কথা-কাটাকাটি করছিলেন। নেইমারের ওই কাণ্ড প্রথমে না দেখলেও ভিএআরের সাহায্যে পরে নেইমারকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন রেফারি।

নেইমার এরপর টুইট করে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন, ‘আমার একটাই দুঃখ, এই বদমাশকে চর মারলাম না কেন।’ এরপরই সব ক্ষোভ ঢেলে দেন আরেক টুইটে, ‘ভিএআর আমার আগ্রাসী আচরণ খুব সহজেই খুঁজে পেল... ওই বর্ণবিদ্বেষী যে আমাকে (বাঁদর) বলে গালি দিল এখন আমি সে ছবিও দেখতে চাই... আমি এখন সেটা দেখতে চাই। কী হলো? আমাকে ঠিকই শাস্তি দেওয়া হলো। আমাকে বের করে দেওয়া হলো...ওদের শাস্তি হবে না? কী ব্যাপার?’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আলভারোকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ার খবর নিশ্চিত করেন মার্শেই কোচ আন্দ্রে ভিলাস-বোয়াস, ‘আলভারো ঠিক আছে। তবে সত্যি সত্যি ওকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। আমরা পুলিশকে জানিয়েছি। এখন দায়িত্বটা তাদের হাতে।’

মার্শেইয়ের এ কোচ তাঁর দলের খেলোয়াড়ের পাশেই আছেন, ‘আমরা খেলোয়াড়ের পাশে আছি। সত্য বের করার দায়িত্ব দুই ক্লাবেরই। কিন্তু আমরা নিশ্চিত যে আলভারো বর্ণবাদী নয়। সত্যটা বের করতে আমরা যারপরনাই চেষ্টা করব। নেইমার নিজেও এর আগে মিথ্যা অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছে। এ জন্য তাকে ভুগতেও হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পিএসজি-মার্শেই ম্যাচে মোট পাঁচ খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখেন। এদিকে পিএসজিও নেইমারের পাশে দাঁড়িয়েছে। সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে আগেই তারা জানিয়েছে, ‘পিএসজি আন্তরিকভাবে নেইমারকে সমর্থন দিচ্ছে, তিনি বলেছেন তাঁর সঙ্গে প্রতিপক্ষের একজন খেলোয়াড় বর্ণবাদী আচরণ করেছেন। ক্লাব আবারও ব্যাপারটা পরিষ্কার করে বলতে চায়, সমাজের কোনো জায়গায় বর্ণবাদের জায়গা নেই। না ফুটবলে, না ব্যক্তিগত জীবনে। আমরা আশা করি এই জঘন্য আচরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হবে সবাই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন