default-image

ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের উত্তরসূরি হিসেবে চেলসি চাচ্ছিল জার্মান ভাষায় কথা বলতে পারেন এমন একজনকে। বারবারই উঠে এসেছে পিএসজির সাবেক কোচ টমাস টুখেল, লাইপজিগের বর্তমান ও সাবেক দুই কোচ ইউলিয়ান নাগলসমান ও রালফ রাংনিকের নাম।

শেষমেশ টুখেলকে ভরসা মানল চেলসি। মাত্র ৩১ দিন আগে যে ম্যানেজারকে ছাঁটাই করেছিল পিএসজি, সে ম্যানেজারকেই এখন ত্রাতা মানছে ইংলিশ ক্লাবটি।

এর মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়োগের খবর জানিয়ে দিয়েছে চেলসি।

বিজ্ঞাপন

আপাতত ১৮ মাসের চুক্তিতে চেলসিতে যোগ দিচ্ছেন টুখেল। ভালো পারফরম্যান্স দেখালে এই চুক্তি আরও এক বছর বাড়বে, এমন সুযোগ আছে। নিজের সঙ্গে আরও তিনজন কোচিং সদস্য নিয়ে আসছেন টুখেল।

জার্মান ক্লাব মাইঞ্জের কোচ হিসেবে প্রথমে নাম করেছিলেন টুখেল। তখন তিনি স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন আরেক জার্মান ম্যানেজার ইয়ুর্গেন ক্লপের। পাঁচ বছর মাইঞ্জে থাকার পর আবারও ক্লপের ফাঁকা জায়গায় বসতে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কোচ হয়েছিলেন টুখেল।

সেখানে দৃষ্টিনন্দন ফুটবল খেলিয়ে সবার নজর কাড়েন। লিগ না জিতলেও একবার জার্মান কাপ জিতেছিলেন টুখেল। দুই বছর ডর্টমুন্ডে থাকার পর ছাঁটাই হন এই কোচ।

২০১৮ সালের মে মাসে স্প্যানিশ ম্যানেজার উনাই এমেরির জায়গায় নেইমার-এমবাপ্পেদের কোচ হিসেবে পিএসজিতে যোগ দেন তিনি। গত মৌসুমে দলকে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালেও তুলেছিলেন। যদিও শিরোপা জিততে পারেননি শেষমেশ।

চ্যাম্পিয়নস লিগ না জিততে পারলেও ফ্রান্সের ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় বেশ সফল ছিলেন টুখেল। দুবার লিগ জিতেছেন, ফরাসি কাপও জিতেছেন দুবার।

default-image

দায়িত্ব নিয়েই চেলসিকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি এই জার্মান ম্যানেজার, ‘আমার ও আমার কোচিং সদস্যদের ওপর ভরসা রাখার জন্য চেলসিকে ধন্যবাদ। ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড কোচ হিসেবে এখানে যা যা করে গেছেন, সবকিছুর ওপর শ্রদ্ধা আছে আমাদের। বিশ্বের সবচেয়ে বড় লিগে দলকে খেলানোর জন্য তর সইছে না আমার। চেলসি পরিবাররে একজন সদস্য হতে পেরে আমি গর্বিত।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন