নেইমারের একার আয় আতালান্তার সব খেলোয়াড়ের সমান

বিজ্ঞাপন
default-image

খেলার মাঠে প্রতিপক্ষ যত দুর্বলই হোক খাটো চোখে দেখতে নেই—খেলাধুলায় এটি কম-বেশি মানে সব দল, সব খেলোয়াড়ই। তবুও কখনো কখনো ব্যত্যয় ঘটে। বিশেষ করে ক্লাব ফুটবলে। আতালান্তার কথাই ধরুন। চ্যাম্পিয়নস লিগে এবার প্রথমবারের মতো খেলতে এসেই শেষ আটে উঠেছে ইতালিয়ান ক্লাবটি। কাল রাতে সেমিতে ওঠার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। ফরাসি ক্লাবটি ইউরোপিয়ান ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত শক্তি। টাকায় কিংবা খেলায়। আতালান্তা সে তুলনায় পিএসজির ধারেকাছেও নেই।

তবুও ক্রীড়াপ্রেমীরা আতালান্তার পক্ষে ফ্রি কিক নিতে পারেন। বলতে পারেন, এ আবার নতুন কী! বুক অব স্যামুয়েলের ‘ডেভিড বনাম গোলিয়াথ’লড়াই স্মরণ করিয়ে দিতে পারেন তারা। ফুটবলে তো এমন অহরহ-ই ঘটছে। ডাকসাইটে ক্লাব হাবুডবু খায় পুঁচকে ক্লাবের মুখোমুখি হয়ে। চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রতি মৌসুমেই এমন দু-একটা ম্যাচ দেখা যায় যেখানে বড় দল অঘটনের শিকার হয়। তাই শক্তিমত্তার তুলনা করে লাভ নেই। মাঠের খেলাই আসল।

সে তো বটেই। দিন শেষে স্কোরলাইনটাই প্রতিষ্ঠিত সত্য। এ নিয়ে কোনো বিতর্ক চলে না। তবে বিতর্ক হতে পারে দুই দলের খেলোয়াড়দের মাঝে বেতনের আকাশ-পাতাল ফারাক নিয়ে। যেমন ধরুন, আতালান্তা স্কোয়াডের সব খেলোয়াড়ের সমান বেতন পান নেইমার একাই। হিসেব কষে এমন তথ্যই জানিয়েছে ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যম ‘লা গাজেত্তা দেল্লো স্পোর্ত’। পিএসজিতে সব মিলিয়ে ব্রাজিলিয়ান তারকার বাৎসরিক আয় ৩৬ মিলিয়ন ইউরো। ফরাসি সংবাদমাধ্যম ‘লেকিপ’-এর হিসেবে বোনাস ও অন্যান্য বিষয়াদি বাদ রেখে নেইমারের বার্ষিক নিট আয় ৩০ মিলিয়ন ইউরোর কিছু বেশি। এদিকে আতালান্তার গোটা স্কোয়াডের বাৎসরিক আয় ৩৩ থেকে ৩৬ মিলিয়ন ইউরোর মধ্যে।

ইতালিয়ান ক্লাবটির সর্বোচ্চ আয়কারী তিন খেলোয়াড় পাপু গোমেজ, ডুভান জাপাতা ও লুই মুরিয়েল। তাদের বাৎসরিক আয় ১.২ মিলিয়ন ইউরো। বোনাস মিলিয়ে সেটি সর্বোচ্চ দাঁড়ায় ১.৮ মিলিয়ন ইউরো। এ তিনজন মিলে বছর শেষে ঘরে তোলেন সর্বোচ্চ ৫ মিলিয়ন ইউরো। এদিকে পিএসজি আক্রমণভাগের তিন তারকা নেইমার, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও মাউরো ইকার্দি মিলে বছরে মোট আয় করেন ৫৫ মিলিয়ন ইউরো। এমবাপ্পে বছরে পান ১৬ মিলিয়ন ইউরো।

কাড়ি কাড়ি পেট্রো ডলার খরচ করেও চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপার দেখা পায়নি পিএসজি। কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠাই তাদের সর্বোচ্চ সাফল্য। এদিকে বেতন বিচারে পুঁচকে স্কোয়াড নিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে অভিষেকেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে আতালান্তা। কাল রাতে দুই দলের মুখোমুখিতেই টের পাওয়া যাবে কে সেরা, টাকা-পয়সা বিচারে ফরাসি ‘গোলিয়াথ’ নাকি ইতালিয়ান ‘ডেভিড’?

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন