নেইমারের রেকর্ড ধুলোয় মেশাবেন এমবাপ্পে?

পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। তাঁকে কিনতে পারবে রিয়াল?
পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। তাঁকে কিনতে পারবে রিয়াল? ছবি: টুইটার
বিজ্ঞাপন

কিলিয়ান এমবাপ্পের দলবদলের কথা উঠলে নেইমারের প্রসঙ্গ ওঠা যেন বাধ্যতামূলক। তিন বছর আগে দলবদলের বিশ্ব রেকর্ড গড়ে (২২ কোটি ২০ লাখ ইউরো) পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। এই সময়ের মধ্যে তারকা হয়ে বেড়ে উঠেছেন এমবাপ্পে। লিওনেল মেসি-ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো-নেইমারের বাইরে দলবদলের বাজারে এমবাপ্পে সবার জন্যই ‘হট কেক’। কিন্তু সমস্যা হলো এই ‘কেক’-এর স্বাদ পেতে পিএসজি যে দাম চাচ্ছে তা অনেক ক্লাবেরই সাধ্যের বাইরে।

রিয়াল মাদ্রিদের জন্য কাজটা একেবারে অসম্ভব কিছু না। করোনাভাইরাস মহামারিতে আর্থিক ক্ষতি হলেও দলবদলের এ মৌসুমে খরচ করেনি রিয়াল। সংবাদমাধ্যমের মতে, শীতকালীন দলবদলেও এই ধারা বজায় থাকবে। ২০২১ সালে তাঁকে কিনতে চায় স্প্যানিশ ক্লাবটি। এবার দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়ে নিন। ২০২১ সালে ক্লাব ছাড়ার ইচ্ছা পিএসজিকে জানিয়েছেন এমবাপ্পে। এতেই নতুন করে নড়েচড়ে বসেছে রিয়াল।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এমবাপ্পেকে কেনার ইচ্ছা আজকের নয় মাদ্রিদের ক্লাবটির। করোনা বৈশ্বিক আর্থিক পরিস্থিতির ক্ষতি করলেও একটি জায়গায় সুবিধা করে দিয়েছে রিয়ালকে। পিএসজি যে দাম চাইছে তা এই পরিস্থিতিতে দর-কষাকষি করে কমানোর চেষ্টা করবে রিয়াল।
এখন প্রশ্ন হলো এমবাপ্পের দাম কত?

তার আগে একটু পটভূমি টানা যাক। আগামী দশকের পরিকল্পনা শুরু করেছে রিয়াল। স্কোয়াডে তারা এমন একজন ‘আইকন’ চায় যাঁকে সামনে রেখে মাঠ ও মাঠের বাইরে লাভবান হবে ক্লাবটি। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো যেমন ছিলেন। এ সময় ২১ বছর বয়সী ফরাসি তারকাই রিয়ালের এই হিসেবের সঙ্গে সবচেয়ে মানানসই। বয়সে তরুণ, প্রতিভায় অফুরান আর বিশ্বকাপও এর মধ্যে জিতেছেন এমবাপ্পে। এমন ফুটবলারকে যে কোনো ক্লাবই সর্বোচ্চ মূল্যে বিক্রি করতে চাইবে। পিএসজি সে হিসেব জানে বলেই এক বছর আগে দাম হেঁকে রেখেছে ৩০০ মিলিয়ন ইউরো। ২০২২ এর জুনেই পিএসজির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে এমবাপ্পের।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ফরাসি ক্লাব ছেড়ে নতুন চ্যালেঞ্জের খোঁজে নামতে চান এমবাপ্পে। ফুটবলপ্রেমীমাত্রই জানেন, ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে এমবাপ্পের মতো তারকার নতুন চ্যালেঞ্জ খোঁজ করা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না। সে ক্ষেত্রে রিয়ালই এমবাপ্পের মোক্ষধাম—মানে, পিএসজি তারকা বেশ আগেই রিয়ালে যোগ দেওয়ার ইচ্ছার কথা বলেছেন। আর রিয়ালের আগ্রহও পুরোনো খবর। এই পরিস্থিতিতে রিয়াল তাঁকে কত দামে কিনতে চায়—সেটা বড় প্রশ্ন।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এএস’ জানিয়েছে, এমবাপ্পের দাম নিয়ে পিএসজির সঙ্গে ঐকমত্যে পৌঁছানোই সবচেয়ে বড় সমস্যা রিয়ালের জন্য। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, এমবাপ্পের জন্য ১২০ মিলিয়ন থেকে ১৫০ মিলিয়ন ইউরো দাম হাঁকাতে পারে রিয়াল। পিএসজি যে রাজি হবে না তা বলাই বাহুল্য। সে ক্ষেত্রে রিয়ালকেও দাম বাড়াতে হবে। আর ২০২০-২১ মৌসুমে দলবদলে কোনো টাকা না ঢালা রিয়াল কিন্তু আর্থিকভাবে সেরকম পরিস্থিতিতেই আছে। এ কারণেই উঠে আসছে নেইমারের প্রসঙ্গ—রেকর্ডটা নতুন করে লেখা হবে তো?

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

২০২১ সালে এমবাপ্পেকে কিনতে না পারলে পরের বছরও সুযোগ থাকছে। চুক্তির মেয়াদ ফুরোনোয় তখন ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাবেন এমবাপ্পে। রিয়ালেরও সুবিধা হয়ে যাবে, যদি এমবাপ্পে সেখানে যেতে চান আরকি। এদিকে এমবাপ্পকে বছরে ৪০ মিলিয়ন ইউরো বেতন দেওয়ার লোভ দেখাচ্ছে পিএসজি। এভাবে তারা ফরাসি তারকাকে আরও কয়েক মৌসুম ধরে রাখতে চায়। কিন্তু এমবাপ্পের তো মন ছুটে গেছে।

রিয়াল তাঁর ডাকে কতটুকু সাড়া দেয় সেটাই দেখার বিষয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন