বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

লিভারপুলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বেশ কয়েকবার প্রিমিয়ার লিগে পাঁচ বদলির নিয়ম চালু করার পক্ষে কথা বলেছেন। যদিও বেশ কয়েকটি ক্লাবের ম্যানেজার এ নিয়ম চালু করার পক্ষে ছিলেন না। অনেকের ধারণা, পাঁচ বদলিতে বড় ক্লাবগুলো বাড়তি সুবিধা পায়। কারণ, বড় ও ভালো স্কোয়াড থাকার সুবিধা নিয়ে ম্যাচের ভাগ্য বদলানোর সুযোগটা বড় ক্লাবেরই বেশি থাকে। কিন্তু আজ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলো সবাই আগামী মৌসুম থেকে পাঁচ বদলির পক্ষেই ভোট দিয়েছে। এই প্রস্তাব পাস হতে ২০ ক্লাবের মধ্যে অন্তত ১৪ ক্লাবকে এর পক্ষে রাজি হতে হতো।

default-image

আজ লিগের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আগামী মৌসুম থেকে, ক্লাবগুলোকে পাঁচটি বদলি ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হবে। তিনবারে এই বদলিগুলো করা যাবে। বিরতিতেও বদলির সুযোগ থাকবে। ম্যাচ স্কোয়াডে সব মিলিয়ে নয়জন বদলি রাখা যাবে।’

এ ছাড়া আরেকটি বড় পরিবর্তন আনছে প্রিমিয়ার লিগ। বর্তমানে খেলোয়াড় ও স্টাফদের সপ্তাহে দুবার বাধ্যতামূলক করোনা পরীক্ষা দিতে হয়। গত ২১ ও ২৭ মার্চের মধ্যে খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের ১ হাজার ৩৮৮টি করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ২২টি পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে। প্রিমিয়ার লিগ তাই এই নিয়ম থেকে সরে আসছে, ‘৪ এপ্রিল থেকে খেলোয়াড় ও স্টাফদের সপ্তাহে দুবার করোনা পরীক্ষা করানোর নিয়ম আর থাকছে না। এখন থেকে শুধু লক্ষণ থাকলেই পরীক্ষা করা হবে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন