জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামার অপেক্ষায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।
জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামার অপেক্ষায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ছবি: রয়টার্স

উয়েফা নেশনস কাপ দিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফেরার প্রহর গুনছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। অপেক্ষা ছিল রেকর্ড মাইলফলক ছোঁয়ারও। দেশের হয়ে শততম গোল করার মাইলফলক। কিন্তু সংক্রমণ তাঁর অপেক্ষা বাড়াতে পারে।

পোর্তোয় কাল রাতে নেশনস কাপে ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে পর্তুগাল। এ ম্যাচ সামনে রেখে লিসবনে অনুশীলন করছে ফার্নান্দো স্যান্টোসের দল। রোনালদো কাল অনুশীলন করেননি দলের সঙ্গে। ডান পায়ের আঙুলে সংক্রমণের শিকার হয়েছেন পর্তুগিজ তারকা। পর্তুগিজ ফুটবল ফেডারেশন (এফপিএফ) এক বিবৃতিতে খবরটি নিশ্চিত করেছে। রোনালদোকে সুস্থ করতে অ্যান্টি বায়োটিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

default-image
বিজ্ঞাপন

তবে সুস্থ হয়ে উঠতে রোনালদোর কত দিন লাগবে সে ব্যাপারে এফপিএফ কিছু জানায়নি। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে রোনালদো ম্যাচ খেলার মতো ফিট থাকবেন কি না সে সম্পর্কেও কিছু জানা যায়নি। তাঁকে দিন ধরে ধরে পর্যবেক্ষণ করা হবে। অর্থাৎ প্রতিদিন রোনালদোর অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন দলের চিকিৎসকেরা। জাতীয় দলের হয়ে দারুণ এক মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে রোনালদো। ১৬৪ ম্যাচে তাঁর গোলসংখ্যা ৯৯। জাতীয় দলের হয়ে ইতিহাসে দ্বিতীয় ফুটবলার হিসেবে শত গোল করার মাইলফলক ছোঁয়ার লক্ষ্য জুভেন্টাস তারকার সামনে। এর আগে মাইলফলকটি গড়েছেন ইরানের সাবেক স্ট্রাইকার আলী দাইয়ি। ১৪৯ ম্যাচে ১০৯ গোল করেছেন তিনি।

পর্তুগিজ ফুটবল ফেডারেশন (এফপিএফ) এক বিবৃতিতে জানায়, ‘(বৃহস্পতিবার) আজ অনুশীলন করবেন না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। গতকাল জিমে সময় কাটান জাতীয় দলের এ অধিনায়ক। তাঁর ডান পায়ের আঙুল সংক্রমিত হয়েছে এবং অ্যান্টি বায়োটিক চিকিৎসা চলছে। এফপিএফ প্রতিদিন রোনালদোর অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবে।’

করোনাভাইরাসের কারণে কয়েক মাস বন্ধ ছিল আন্তর্জাতিক ফুটবল। এ বছর আর গোল করার সুযোগ পাননি রোনালদো। গতবার নেশনস কাপ জয়ী পর্তুগাল এ বছর নিজেদের প্রথম ম্যাচে গত বিশ্বকাপের রানার্সআপদের মুখোমুখি হবে। তবে রোনালদো এ ম্যাচে খেলতে পারবেন কি না তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে। ক্রোয়াটদের বিপক্ষে খেলতে না পারলে পরের ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে খেলতে পারেন রোনালদো। এ নিয়ে দ্বিতীয় দফা পর্তুগালের অনুশীলনে থাকতে পারলেন না তিনি।

এদিকে মিডফিল্ডার রেনাতো সানচেজকে পাচ্ছে না পর্তুগাল। মাংসপেশির চোটে ভোগার কথা আগেই জানিয়েছিল তাঁর ক্লাব লিঁল। জাতীয় দলের চিকিৎসকেরাও তাতে একমত হওয়ায় আজ ক্যাম্প ছাড়বেন সানচেজ।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন