পিএসজির সামনে অসহায় মনে হয়েছে পিকেদের।
পিএসজির সামনে অসহায় মনে হয়েছে পিকেদের।ছবি: রয়টার্স

ক্যাম্প ন্যুকে দুর্গ বলেই মনে করা হতো। ফর্ম যত বাজেই হোক, যে কোচের অধীনেই খেলুক না কেন বার্সেলোনা, নিজেদের মাঠে অপ্রতিরোধ্য ছিল কাতালানরা। এ মৌসুমে এ কথাটা হঠাৎ ভুল মনে হচ্ছে। এ মৌসুমে বাজে ফর্মে থাকলেও লিগে ছোট দলের বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয়ই পেয়েছে বার্সা। কিন্তু ঘরের মাঠে প্রতিপক্ষ হয়ে যখন আসে কোনো পরীক্ষিত পরাশক্তি, তখনই কেঁপে উঠেছে বার্সেলোনা।

নিজেদের মাঠে লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ৩-১ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। সে ক্ষত আরও গভীর করেছেন রিয়ালের সাবেক তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। জুভেন্টাসের জার্সিতে খেলতে এসে চ্যাম্পিয়নস লিগে দুই গোল করেছেন, তাঁর দলও জিতেছে ৩-০ গোলে। তবু ওই দুই ম্যাচে বার্সাকে অতটা অসহায় মনে হয়নি, যতটা মনে হয়েছে গত সপ্তাহে। চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে পিএসজির সামনে ৪-১ গোলে উড়ে গেছে বার্সেলোনা।

এমন অবস্থায়ও দলের ওপর আস্থা হারাচ্ছেন না রোনাল্ড কোমান। আজ লিগে কাদিজের বিপক্ষে ম্যাচ বার্সেলোনার। সে ম্যাচেও পিএসজি ম্যাচের একাদশকেই নামাচ্ছেন কাতালানদের কোচ।

বিজ্ঞাপন

আজও ক্যাম্প ন্যুতে ম্যাচ বার্সেলোনার। কোমানের অধীনে ঘরের মাঠে তথাকথিত ছোট দলের বিপক্ষে ভালোই খেলছে বার্সেলোনা। সমস্যা হচ্ছে বড় দলের বিপক্ষে। ধারে-ভারে সমশক্তির তিনটি দলের সঙ্গে এবার ন্যু ক্যাম্পে খেলে প্রতিবারই অন্তত ৩ গোল খেয়েছে বার্সা। পিএসজি ম্যাচের আগে ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনা সর্বশেষ ৪ গোল খেয়েছিল সোয়া দুই বছর আগে। আর ঘরের মাঠে গত ১৭ বছরের এই নিয়ে মাত্র দ্বিতীয়বার ৪ গোল হজম করেছে বার্সা।

আজ বার্সার প্রতিপক্ষ কাদিজের স্প্যানিশ লিগের পয়েন্ট তালিকায় অবস্থান ১৫তম। তবে বাস্তবে অবনমন অঞ্চল থেকে মাত্র ৩ পয়েন্ট দূরে আছে তারা। ফলে এমন এক দলের বিপক্ষে আগের ম্যাচের একাদশ নিয়ে নামার সাহস দেখাতেই পারেন কোমান। পিএসজির বিপক্ষে হেরে যাওয়া দলটির মনোবল বাড়ানোর এ চেষ্টায় কপাল পুড়েছে একাডেমির তরুণ প্রতিভা ইলাইস মরিবা, কনরাদ দে লা ফুয়েন্তে বা আলেক্স কোলাদোদের।

default-image

কোমানের এমন চিন্তায় বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। কারণ, লিগে কাদিজ ভালো অবস্থায় না থাকলেও প্রতিপক্ষের মাঠে দলটি দারুণ খেলছে। ঘরের মাঠে ১২ ম্যাচে মাত্র ১০ পয়েন্ট পাওয়া দলটি প্রতিপক্ষের মাঠে ১১ ম্যাচে পেয়েছে ১৪ পয়েন্ট। ১১ ম্যাচে ৪ জয়ের সঙ্গে দুই ড্র। আর প্রতিপক্ষের মাঠে তাদের জয়গুলোও যেমন-তেমন ম্যাচ নয়। রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাথলেটিক বিলবাওর মতো ঐতিহ্যবাহী দলকে তাদের মাঠে হারিয়ে আসা দল কাদিজ।

প্রতিপক্ষের মাঠে জ্বলে উঠতে পারা এক দলের বিপক্ষে আগের ম্যাচেই ঘরের মাঠে অপদস্থ হওয়া বার্সা মুখোমুখি হচ্ছে। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাতটায় শুরু হওয়া ম্যাচেই বোঝা যাবে দলের ওপর আস্থা রেখে ভুল করেছেন কি না কোমান। বার্সার জন্য আরও শঙ্কার ব্যাপার, এই কাদিজের মাঠেই এই মৌসুমে লিগে ৩-১ গোলে হেরেছিল বার্সা!
জেতার জন্য প্রেরণার অবশ্য অভাব নেই বার্সার। লিগশীর্ষে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদ গতকাল লেভান্তের কাছে ২-০ গোলে হেরেছে। রিয়াল মাদ্রিদ ১-০ গোলে জিতেছে ভায়াদোলিদের বিপক্ষে। তাতে পয়েন্ট তালিকার অবস্থা এখন এমন—শীর্ষে থাকা আতলেতিকোর পয়েন্ট ২৩ ম্যাচে ৫৫, দুইয়ে থাকা রিয়ালের ২৪ ম্যাচে ৫২। তিনে থাকা বার্সার পয়েন্ট এখন ২২ ম্যাচে ৪৬। জিতলে আতলেতিকো-রিয়ালের সঙ্গে ব্যবধানটা আরও কমিয়ে আনতে পারবে বার্সা।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন