পিএসজির লিগ জয়ের ম্যাচে নেইমার-মেসিই নেই?

পিএসজির তিন তারকা নেইমার, কিলিয়ান এমবাপ্পে ও লিওনেল মেসিফাইল ছবি: এএফপি

এই মৌসুমে পিএসজির প্রাপ্তি কি?

সাফল্যের চেয়ে ব্যর্থতার পাল্লাই ভারী হবে। ফরাসি কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছে, ফরাসি সুপার কাপের ফাইনালেও ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয়নি। পরম আরাধ্য চ্যাম্পিয়নস লিগ যে এবারও কপালে জুটবে না, সেটা রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডের পরেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। হাজার ব্যর্থতার মাঝে একটাই স্বস্তি, গতবার লিলের কাছে লিগ হারানো দলটা এবার লিগ পুনরুদ্ধার করছে।

আজ অজেঁর বিপক্ষে মাঠে নামছে প্যারিসের ক্লাবটা। ওদিকে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা অলিম্পিক মার্শেই লড়বে নঁতের বিপক্ষে। লিগ শিরোপা চূড়ান্ত করার আজই সুযোগ পেয়ে যাচ্ছে পিএসজি। যদি আজ অঁজেকে হারাতে পারে, তাহলে পাঁচ ম্যাচ হাতে রেখে শিরোপা প্রায় নিশ্চিত করে ফেলবেন নেইমার-এমবাপ্পেরা।

অবশ্য কাগজে-কলমে তাও একটা সম্ভাবনা বাকি থাকে মার্শেইর। পিএসজি পরের পাঁচ ম্যাচ যদি হারে, ওদিকে মার্শেই নিজেদের হাতে থাকা পাঁচ ম্যাচ যদি জেতে, দুই দলের পয়েন্ট সমান হয়ে যাবে। তখন হবে গোল ব্যবধানের হিসাব। পরের পাঁচ ম্যাচই পিএসজি হারবে, সেটা পিএসজিকে সবচেয়ে বেশি অপছন্দ করা মানুষটাও বিশ্বাস করবেন না হয়তো। আর সেটা যদি কোনোভাবে হয়েও যায়, গোল ব্যবধানের হিসেবে মার্শেই ২১ গোলে পিছিয়ে আছে।

মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে
ছবি: এএফপি

পাঁচ ম্যাচ জেতার পাশাপাশি এই ঘাটতিটাও মার্শেই পূরণ করে ফেলবে, এটাও প্রায় অসম্ভব। কারণ, এ মৌসুমে ম্যাচপ্রতি দুই গোল করতে ব্যর্থ হয়েছে মার্শেই। এর চেয়ে অজেঁকে হারিয়ে আজ পিএসজি নিজেদের লিগ শিরোপা নিশ্চিত করবে, সেটা ঢের বেশি বিশ্বাসযোগ্য। তবে আজ পিএসজি হেরে গেলে, আর মার্শেই জিতলে, শিরোপা জয়ের উৎসবটা অন্তত আরও এক ম্যাচের জন্য পেছাতে হবে পিএসজিকে।

অথচ এমন এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কি না মেসিই থাকবেন না!

পিএসজি কোচ মরিসিও পচেত্তিনো
ছবি: টুইটার

হ্যাঁ, পিএসজির কোচ মরিসিও পচেত্তিনো নিজেই নিশ্চিত করেছেন খবরটা। অজেঁর বিপক্ষে আর পিএসজির স্কোয়াডে থাকবেন না মেসি। এমবাপ্পে আর দি মারিয়াদের দিয়েই কাজ চালাতে হবে পচেত্তিনোকে। ফ্রান্সে এসে এই মৌসুমে আট গোল আর ১৩ গোল সহায়তা করা মেসিকে এই ম্যাচে খেলতে দিচ্ছে না বাঁ দিকের অ্যাকিলিস টেনডনের চোট।

শুধু মেসিই নন, নিষেধাজ্ঞার কারণে খেলা হচ্ছে না নেইমারেরও। ওদিকে ভেরাত্তি ও কিমপেম্বের মতো খেলোয়াড়েরাও মেসির মতো চোটের কারণে শুশ্রূষার টেবিলে। এই ম্যাচে জাভি সিমন্স ও এদোয়ার্দ মিশুদের মতো খেলোয়াড়দের মাঠে নামিয়ে বেঞ্চের শক্তি পরখ করবেন পচেত্তিনো, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি, ‘লিও মেসি, মার্কো ভেরাত্তি ও প্রেসনেল কিমপেম্বের মতো কিছু খেলোয়াড় খেলবে না এই ম্যাচে। ওরা প্রত্যেকেই চিকিৎসা নিচ্ছে। ওদিকে নেইমারের ওপর নিষেধাজ্ঞার খড়্গ। তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য নিজেদের প্রমাণ করার, অভিজ্ঞতা অর্জন করার এটাই সুযোগ। জাভি সিমন্স, এদোয়ার্দ মিশুদের মতো খেলোয়াড়েরা নিয়মিত অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করছে। ভবিষ্যতে ওরাই ক্লাবের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’