বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অথচ গত এপ্রিলেও ইউরোপিয়ান সুপার লিগের দাবিতে রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বলেছিলেন, ‘কোয়ার্টার ফাইনালের আগ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়নস লিগে কারও আগ্রহ নেই।’

কিন্তু পাঁচ মাস না যেতেই বাস্তবতা বুঝলেন পেরেজ। যে দলটার গোটা স্কোয়াডের খেলোয়াড়দের দাম (১২ মিলিয়ন ইউরো) রিয়াল তারকা ডেভিড আলাবার এক বছরের বেতনের সমান—সেই শেরিফের কাছে হেরে বসল চ্যাম্পিয়নস লিগে সবচেয়ে সফল ক্লাবটি। ‘গার্ডিয়ান’ ও ‘ফোর ফোর টু’তে সংবাদকর্মী হিসেবে কাজ করা এমানুয়েল রোসুর মতে, বার্নাব্যুতে রিয়ালের বিপক্ষে শেরিফের জয় চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসেই সবচেয়ে বিস্ময়কর ফল। অনেকটাই সান মারিনোর চীন দখলের মতো!

default-image

তা, শেরিফ এ সাহস পেল কোথা থেকে? সেটিও আবার রিয়ালের ঘরে ঢুকে জয় তুলে নেওয়া, যা কি না ইউরোপের বাঘা বাঘা দলও পারে না। সংস্কারের পর নতুন করে সাজা সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর সাজ সাজ রবকে পুরো মাটি করে দিয়েছে শেরিফ।

দলটির অধিনায়ক ফ্রাঙ্ক কাসতানেদা জানালেন, রিয়ালের মাঠে পা রাখার রোমাঞ্চে তারা ডুবে না গিয়ে ম্যাচটা জেতার প্রতিজ্ঞা নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন, ‘আমরা জিততে এসেছিলাম। এখানে চুপচাপ বসে থাকতে আসিনি। আমাদের খেলোয়াড়েরা কত ভালো, সেটা আমরা জানি। সৌভাগ্যজনকভাবে রিয়াল মাদ্রিদ তাদের সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারেনি।’

সে তো বটেই। শেরিফের জালে ৩১বার গোলের চেষ্টা করেছে রিয়াল। সে তুলনায় ৪বার চেষ্টা করেই দুটি গোল আদায় করে নেয় শেরিফ। রিয়ালের বিপক্ষে তাদের এমন দারুণ পারফরম্যান্সের পেছনে এই টুর্নামেন্টে অভিষেকেই (শাখতার দোনেৎস্কের বিপক্ষে) জয়ের আত্মবিশ্বাসও কাজ করেছে।

default-image

এদিকে পেরেজ বলেছিলেন, চ্যাম্পিয়নস লিগে গ্রুপপর্বের ম্যাচগুলো তাঁকে টানে না। তবে কাল রাতে রিয়ালের হার তিনি না দেখে থাকলেই ভালো! যে সুপার লিগ আয়োজন করে ইউরোপের ছোট দলগুলোকে প্রস্তাবিত এ টুর্নামেন্ট থেকে ছেঁটে ফেলতে চেয়েছিলেন পেরেজ, তেমন একটি দলই বুঝিয়ে দিয়েছে চ্যাম্পিয়নস লিগ মানেই শুধু বড় দলের খেলা নয়।

রিয়ালের বিপক্ষে জয়সূচক গোল করা শেরিফ মিডফিল্ডার সেবাস্তিয়ান থিল জানালেন, জয়ের পর খেলোয়াড়দের সবার মধ্যে পাগলামো ভর করেছিল, ‘ ম্যাচের পর আমরা পাগল হয়ে গিয়েছিলাম! দলে অনেক বিদেশি রয়েছে। বিভিন্ন দেশ থেকে এসেছে তারা। এটাই আমাদের শক্তি।’

২ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘ডি’ গ্রুপে রিয়াল মাদ্রিদ, ইন্টার মিলানের মতো ক্লাবকে পেছনে ফেলে শীর্ষে শেরিফ। এই সাফল্যে এখনই ভেসে যাচ্ছেন না শেরিফ কোচ ইউরি ভের্নাইদুব, ‘আমরা এখনো অসাধারণ কিছু করিনি। তাই শেষ ষোলো নিয়ে এখনই ভাবছি না। ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে চাই।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন