বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

যে কারণে দলে নতুন আসা পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড দিওগো জোতাই সালাহ-মানেদের সঙ্গী হিসেবে নিয়মিত লিভারপুলের মূল ইতিহাসে জায়গা পান; আজও এফসি পোর্তোর বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে সালাহ ও মানের সঙ্গে জোতাই ছিলেন আক্রমণভাগে। কিন্তু এই ম্যাচকেই নিজের ফর্মে ফেরার উপলক্ষ বানিয়ে নিলেন ফিরমিনো।

ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ডের ২ গোলের সঙ্গে মিসরীয় উইঙ্গার সালাহর জোড়া গোল আর সেনেগালের সাদিও মানের ১ গোল মিলিয়ে এফসি পোর্তোকে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে লিভারপুল। পোর্তোর হয়ে গোল পেয়েছেন ইরানিয়ান স্ট্রাইকার মেহদি তারেমি।

ম্যাচের ১৮ মিনিটেই সালাহর গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার একটু আগে জেমস মিলনারের কাছ থেকে বল পেয়ে ব্যবধান বাড়ান সাদিও মানে। ৬০ মিনিটে কার্টিস জোন্সের সহায়তায় নিজের দ্বিতীয় গোল পেয়ে যান সালাহ। এই ম্যাচে জোড়া গোল করে দুর্দান্ত কিছু রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন মোহাম্মদ সালাহ।

লিভারপুলের হয়ে শেষ ছয় ম্যাচে টানা ৬ গোল করেছেন সালাহ। এই চলতি মৌসুমের আট ম্যাচে ৮ গোল করা হয়ে গেছে তাঁর। আজকের ম্যাচে জোড়া গোল করে চ্যাম্পিয়নস লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা আফ্রিকানদের তালিকায় স্যামুয়েল ইতোর সঙ্গে ৩০ গোল নিয়ে যৌথভাবে দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছেন এই মিসরীয়। ৪৪ গোল নিয়ে সবার ওপরে আছেন চেলসি ও মার্শেইয়ের সাবেক স্ট্রাইকার দিদিয়ের দ্রগবা।

এরপরেই শুরু হয় ফিরমিনোর জাদু। মূল একাদশে ছিলেন না, পরে সালাহর জায়গায় ৬৭ মিনিতে তাঁকে মাঠে নামান কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। গোল করতে সময় নেন মাত্র ১০ মিনিট। ৭৭ মিনিটে কার্টিস জোন্সের সহায়তায় ম্যাচে নিজের প্রথম গোল পেয়ে যান ফিরমিনো। এর ঠিক ৪ মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় ও দলের পঞ্চম গোল করেন এই ব্রাজিলীয়। ৭৪ মিনিটে পোর্তোর হয়ে গোল করেন তারেমি।

দুই ম্যাচে দুই জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে লিভারপুল। ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আতলেতিকো। শেষ দুই স্থানে আছে যথাক্রমে পোর্তো ও এসি মিলান।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন