ম্যানচেস্টার সিটির কোচের কাছে প্রিমিয়ার লিগ মৌসুমটা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের মতো।
ম্যানচেস্টার সিটির কোচের কাছে প্রিমিয়ার লিগ মৌসুমটা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের মতো। ছবি: রয়টার্স

ফুটবলপ্রেমীরা রোমাঞ্চ নিয়ে তাকিয়ে আছেন প্রিমিয়ার লিগের আগামীকালের ম্যাচের দিকে। ইউরোপের ফুটবলে এ সপ্তাহের সবচেয়ে বড় ম্যাচটি যে হবে এদিনই, এ লিগেই। নিজেদের মাঠ ইতিহাদে ম্যানচেস্টার সিটি আতিথ্য দেবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলকে। কেমন হবে ম্যাচটি? লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ এটিকে আগেই আখ্যা দিয়েছেন ‘কঠিন এক লড়াই’ বলে। আর ম্যান সিটি কোচ পেপ গার্দিওলার কাছে এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ।

ম্যাচটি সিটি খেলতে নামছে লিভারপুলের চেয়ে ৫ পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে। ৭ ম্যাচে লিভারপুলের পয়েন্ট ১৬, এক ম্যাচ কম খেলা সিটির পয়েন্ট ১১। অনেকেই বলছেন, এ ম্যাচে হারলেই ম্যান সিটির শিরোপা লড়াই থেকে ছিটকে পড়া নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে। কিন্তু গার্দিওলার কাছে বিষয়টি মোটেই সে রকম নয়। লিভারপুলের বিপক্ষে ম্যাচটিকে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে ম্যান সিটি কোচ বলেছেন, ‘মৌসুমটাকে আমি যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের মতো বলব। নির্বাচনে যেমন সব ভোট গণনার আগে কিছু বলা যাবে না, এখানেও তেমন অনেক পয়েন্টের খেলা বাকি আছে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

লিভারপুলের বিপক্ষে ম্যাচ সব সময়ই কঠিন। এটা জানেন গার্দিওলাও। তবে সিটিও শিরোপা লড়াইয়ে ফিরতে নিজেদের সেরাটা দিতে তৈরি। এমনটাই বলেছেন গার্দিওলা, ‘আপনি যখন লিভারপুলের মতো শক্তিশালী এক প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলবেন, সব সময়ই কিছু কিছু মুহূর্তে আপনাকে ভুগতে হবে। এটা আমরা ভালো করেই জানি। আমাদের চেষ্টা করে যেতে হবে আর নিজেদের শক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে।’

ম্যাচে উত্থান-পতন থাকবেই। আগে পিছিয়ে পড়লে তা নিয়ে না ভেবে পুরো ৯০ মিনিটই ভালো খেলে যেতে হবে। শিষ্যদের এই পরামর্শই দিয়ে রেখেছেন গার্দিওলা, ‘আমরা একে অপরকে ভালো করে চিনি। আমরা একে অপরের বিপক্ষে অনেক অনেকবার খেলেছি। আমার মনে হয় না ৯০ মিনিটের খেলার পুরোটাই তারা নিয়ন্ত্রণ করবে বা আমরা নিয়ন্ত্রণ করব। ম্যাচে উত্থান-পতন থাকবে। আমাদের স্থির থাকতে হবে আর নিজেদের ভালো সুযোগগুলো নিখুঁতভাবে কাজে লাগাতে হবে।’

default-image

গত জুলাইয়ে দুই দলের সর্বশেষ দেখায় লিভারপুলকে ৪-০ গোলে হারিয়েছিল ম্যান সিটি। তবে সেই জয় এ ম্যাচে কোনো প্রভাব ফেলবে না বা সিটিকে মানসিকভাবে এগিয়ে দেবে না বলেই মনে করেন গার্দিওলা, ‘এটা নতুন এক প্রতিযোগিতা। সে ম্যাচের আগে তাদের শিরোপা জয় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। আমরাও চ্যাম্পিয়নস লিগের টিকিট পেয়ে গিয়েছিলাম। সেটা অন্য এক ম্যাচ ছিল। দুই দলের খেলোয়াড় তালিকায়ও পরিবর্তন এসেছে। আমি অতীতে মনোযোগ দিতে চাই না।’

গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচের আগে লিভারপুলকেই এগিয়ে রাখছেন গার্দিওলা। ম্যান সিটি কোচের কাছে শিরোপা জয়েও ফেবারিট ক্লপের দলই, ‘লিভারপুল সবচেয়ে ফেবারিট।’ এটা বলার অবশ্য একটা কিন্তুও যোগ করেছেন গার্দিওলা, ‘মহামারির কারণে পরিস্থিতি অবশ্য একটু অন্য রকম। শিরোপা দৌড়ে থাকা অন্য দলগুলোও এখন শক্তিশালী। লেস্টার আগের মৌসুমের মতোই ভালো খেলছে। আর্সেনাল এবার ভালো দাবিদার। মরিনিও টটেনহামকে গুছিয়ে ফেলেছেন। চেলসিও এখন গোছানো। গতি পেয়ে গেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0