প্রীতি ও হামেসের খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রা।
প্রীতি ও হামেসের খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রা। ছবি: সংগৃহীত

জন্ম তাঁর যুক্তরাষ্ট্রে। ক্যারিয়ারের সুবাদে বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পেলেও মিশেল অ্যানের আবাস যুক্তরাষ্ট্রেই। পছন্দ-অপছন্দগুলোও তেমনটাই স্বদেশিদের মতোই। খেলাধুলার জগতে আল্টিমেট ফাইটিং, রেসলিং ও বাস্কেটবল নিয়েই আগ্রহ বেশি। তবে ইদানীং ক্রিকেট ও  ফুটবলের প্রতিও আগ্রহ বেড়েছে অ্যানের। প্রাপ্তবয়স্কদের চলচ্চিত্র শিল্পে কেন্দ্রা লাস্ট নামে পরিচিত এই অভিনেত্রী গত কয়েক দিনে ক্রিকেট ও ফুটবল ভক্তদের আলোচনায় চলে এসেছেন টুইট করে।

নিজেকে সব ধরনের খেলার ভক্ত হিসেবে দাবি করেন কেন্দ্রা। তবে এত দিন সে আগ্রহ শুধু যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় খেলাগুলো ঘিরেই বলে জানতেন সবাই। তবে এবারের আইপিএলে আচমকা প্রীতি জিনতার সঙ্গে ক্রিকেট খেলতে চেয়েছেন সপ্তাহের শুরুতে। খেলাধুলার জগতে বিচরণ এখানেই না থামিয়ে গতকাল ফুটবলেও পা বাড়িয়েছেন। এভারটন তারকা হামেস রদ্রিগেজের খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রা। হামেস দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন, সে আশা জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এ সপ্তাহে এভারটনের হয়ে খেলা হচ্ছে না হামেস রদ্রিগেজের। সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার এ মৌসুমে কার্লো আনচেলত্তির দলে গিয়ে ছিলেন দুর্দান্ত ফর্মে। কিন্তু লিভারপুলের বিপক্ষে চোট পেয়েছিলেন। সেটা কতটুকু গুরুতর সেটা প্রথমে বোঝা যায়নি। জানা গেছে অণ্ডকোষে ব্যথা পেয়েছেন হামেস। আর এ কারণেই কবে মাঠে ফিরবেন সেটা বলা যাচ্ছে না। এ খবরটি ২৯ অক্টোবর টুইটারে পোস্ট করে টক স্পোর্টস। সে টুইটে গিয়েই হামেসের প্রতি মমতা ঝরিয়েছেন কেন্দ্রা। লিখেছেন, ‘ওহ হো! আশা করি তুমি ঠিক আছ!’

default-image

কেন্দ্রার এভাবে হামেসের প্রতি আগ্রহ দেখানোয় টুইটার রীতিমতো ভেঙে পড়েছিল। চোটের ধরন ও সেই খবরেই কেন্দ্রার মন্তব্য নিয়ে চটুল সব মন্তব্য করেছেন সমর্থকেরা। ইউরোপের ফুটবল সংক্রান্ত সব সংবাদমাধ্যম এই টুইট নিয়ে মেতেছে। সে খবরগুলো আবার রি-টুইট করেছেন কেন্দ্রা। বলেছেন, ‘পর্নো তারকা বলে ফুটবলের ভক্ত হতে তো দোষ নেই।’ এতে অবশ্য আপত্তি জানাননি কেউ।

বিজ্ঞাপন

কেন্দ্রা অবশ্য এর আগেই ক্রিকেট দুনিয়ায় পরিচিত হয়ে গেছেন। আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দারুণ ফর্মে ছিল। মাঝে টানা পাঁচ ম্যাচ জয় পেয়েছিল দলটি। গত ২৭ তারিখ তাই প্রীতির পাঁচ আঙুল দেখানো এক ছবির দিয়ে ক্রিকইনফো টুইট করে জিজ্ঞেস করেছিল, প্রীতি জিনতা, কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব টানা কয় ম্যাচ জিতেছে? উত্তর তো প্রীতির হাতের আঙুলেই ছিল। তাই সে প্রশ্নের উত্তর দেওয়ায় আগ্রহ দেখাননি কেন্দ্রা। বরং তাঁর নিজের মনের কথা খুলে বলেছেন টুইটে, ‘অদ্ভুত...এখন আমার ক্রিকেট খেলতে ইচ্ছা করছে।’

ইঙ্গিতপূর্ণ সে টুইটের মন্তব্যে অনেকেই তাঁকে জানিয়েছেন, প্রীতি জিনতা কিন্তু ক্রিকেট খেলেন না!

মন্তব্য পড়ুন 0