গ্যালারিতে নেই দর্শক। এমন দৃশ্য ভালো লাগছে না রোনালদোর।
গ্যালারিতে নেই দর্শক। এমন দৃশ্য ভালো লাগছে না রোনালদোর। ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাস না থাকলে সোলনায় কাল রাতের দৃশ্যটা হতো অন্যরকম। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জোড়া গোল উদ্‌যাপন করত টইটম্বুর গ্যালারি। দর্শকদের হই-হল্লা, চিৎকার আর সমর্থন কে না পছন্দ করে! এই দর্শক না থাকলে খেলোয়াড়দের ভালো করার তাগিদেও কিন্তু টান পড়ে। রোনালদো এখন তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন।


না, পর্তুগিজ তারকার ভালো করার তাড়নায় টান পড়েনি। বরং পুরোনো ওয়াইনের মতো বয়স বাড়ার সঙ্গে আরও সুস্বাদু ও কার্যকর হয়ে উঠছেন তিনি। নেশনস কাপে সুইডেনের বিপক্ষে পর্তুগালের ২-০ গোলের জয়ের কারিগর যে রোনালদো। মাঠে দর্শক থাকলে নিশ্চয়ই আরও ভালো লাগত রোনালদোর। তাঁদের সামনে গোল উদ্‌যাপন করতে না পারলে খেলার মজাটাই যে থাকে না! সঙ্গে যোগ করুন রোনালদোর শত গোলের মাইলফলক। ইতিহাসের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে জাতীয় দলের হয়ে শত গোলের মাইলফলক ছুঁলেন রোনালদো। অথচ মাঠে বসে তা দেখল না কোনো দর্শক।

বিজ্ঞাপন
default-image

দর্শকহীন মাঠে খেলার অনুভূতি কেমন—এ প্রশ্নের জবাবে উপমার আশ্রয় নেন জুভেন্টাস তারকা। উদাহরণ দেন সার্কাসের। একটু বুঝিয়ে বলা যাক। এক সময় সার্কাসের ভালো কদর ছিল। তখন লোকে সার্কাস দেখতে যেত বিমল আনন্দ লাভ করতে। সার্কাসের অবিশ্বাস্য সব শারীরিক কসরতের পাশাপাশি আনন্দ জোগানোর কাজটি করতেন ‘ক্লাউন’রা—বাংলায় ভাঁড়। তবে সার্কাসের ভাঁড় আরেকটু অন্যরকম। গোটা শো-তে তাঁরা যোগ করতেন অন্যরকম মাত্রা। মনে হতো তাঁরা-ই সার্কাসের প্রাণ।

বিজ্ঞাপন

ঠিক একইভাবে দর্শকেরাও খেলার প্রাণ। তাঁদের ছাড়াই মাঠে নামা উপভোগ করছেন না রোনালদো। পর্তুগিজ টিভি চ্যানেল ‘আরটিপি’কে তিনি বলেন, ‘দর্শক ছাড়া খেলাটা দুঃখজনক। ব্যাপারটা অনেকটাই এমন—সার্কাসে যাচ্ছি যেখানে ভাঁড় নেই কিংবা বাগান দেখতে গেলাম, যেখানে ফুল নেই।’ রোনালদো জানালেন গ্যালারি থেকে দর্শকদের দুয়োও তাঁর ভালো লাগে। কটু কথা তাঁকে প্রেরণা জোগায়, ‘নিজের কথা বলতে পারি, যখন প্রতিপক্ষের মাঠে যাই দুয়ো উপভোগ করি। এটা আমার ভালো করার প্রেরণা।’

বিজ্ঞাপন

খেলোয়াড় হিসেবে দর্শকহীন মাঠে ভালো লাগে না রোনালদোর। সে কথা বলতেও কুণ্ঠা করেননি তিনি, ‘আমরা খেলোয়াড়েরা এটা পছন্দ করি না (দর্শকহীন মাঠ)। তবে এটা সয়ে গেছে। স্টেডিয়াম যে ফাঁকা থাকবে সেটা তো আগেই জানা।’ কয়েক মাসের মধ্যে দর্শকেরা মাঠে ‘ফিরবেন’ বলেও আশা প্রকাশ করেন রোনালদো—তাঁর ভাষায়, খেলার ‘আনন্দই তো দর্শকেরা’।

মন্তব্য পড়ুন 0