জোড়া গোল পেয়েছেন বেলজিয়ামের রোমেলু লুকাকু।
জোড়া গোল পেয়েছেন বেলজিয়ামের রোমেলু লুকাকু। ছবি: রয়টার্স

উয়েফা নেশনস লিগের ফাইনালসে (চূড়ান্ত পর্ব) উঠেছে বেলজিয়াম ও ইতালি। কাল রাতে রোমেলু লুকাকুর জোড়া গোলে ডেনমার্ককে ৪-২ গোলে হারিয়ে লিগ ‘এ’র দুই নম্বর গ্রুপের শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল বেলজিয়াম। এক নম্বর গ্রুপের ম্যাচে বসনিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে নেশনস লিগের শেষ চার নিশ্চিত করে ইতালি। চার দলের ফাইনালস হবে আগামী বছরের অক্টোবরে। ফাইনালসের অন্য দুটি দল স্পেন ও ফ্রান্স।

গ্রুপের শীর্ষস্থানে থেকে ফাইনালসে যেতে কাল ড্র করলেই হতো বেলজিয়ানদের। কিন্তু ঘরের মাঠে ম্যাচের ৩ মিনিটে ইউরি তিলেমান্সের গোলে এগিয়ে যায় দলটি। জোনাস উইন্ডের গোলে ডেনমার্ক সমতা ফেরালেও দ্বিতীয়ার্ধে লুকাকুর জোড়া গোলে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় বেলজিয়াম।

৮৬ মিনিটে হাস্যকর এক আত্মঘাতী গোলে ব্যবধান কমিয়েছিল ডেনিশরা। নাসের শাদলির ব্যাক পাস বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়ার পায়ের নিচ দিয়ে চলে যায় জালে। মিনিটখানেক পরেই অবশ্য কেভিন ডি ব্রুইনা দারুণ এক গোল করে ব্যবধানটাকে ৪-২ করে দেন।

বিজ্ঞাপন

ইতালি জিতেছে বসনিয়ার রাজধানী সারায়েভোতে। দুই অর্ধে দুই গোল করেছে দলটি। প্রথম গোলটি তুরিনোর আন্দ্রেয়া বেলোত্তির। দ্বিতীয়টি সাসসুয়োলোর দোমেনিকো বেরার্দির। এই জয়ে নেদারল্যান্ডসের চেয়ে ১ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে গ্রুপ পর্ব শেষ করে ইতালি।

default-image

চোট ও করোনাভাইরাসের কারণে দল সাজাতে হিমশিম খেতে হয়েছিল ইতালিয়ানদের। করোনা পজিটিভ হওয়া কোচ রবার্তো মানচিনিও ছিলেন না ডাগআউটে। তবে ম্যাচ শেষ হতেই ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমে খেলোয়াড়দের সঙ্গে উৎসবে যোগ দেন নিজের বাড়িতে আইসোলেশনে থাকা মানচিনি। এরপর টুইট করে দলের প্রশংসা করেন তিনি, ‘কোয়ালিফাইড! প্রত্যাশিত ফল এনে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ! অনন্যসাধারণ!!’

নেদারল্যান্ডস কাল পিছিয়ে পড়েও লিভারপুল মিডফিল্ডার জর্জিনিও ভাইনালডমের জোড়া গোলে পোল্যান্ডকে হারিয়েছে। কাল রাতের লিগ ‘এ’র ম্যাচ জয় দিয়ে শেষ করেছে ইংল্যান্ডও। আগেই বাদ পড়া নিশ্চিত হওয়া ইংলিশরা আইসল্যান্ডকে ঘরের মাঠে হারিয়েছে ৪-০ গোলে। ডেকলান রাইস ও ম্যাসন মাউন্টের গোলে প্রথমার্ধেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। দ্বিতীয়ার্ধে ফিল ফোডেনের জোড়া গোলে ব্যবধানটা দ্বিগুণ করে গ্যারেথ সাউথগেটের দল।

default-image


ইউরোপিয়ান জাতীয় দলগুলো আবারও মাঠে নামবে আগামী মার্চে। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বাছাইপর্ব শুরু হবে তখন। এরপর জুন-জুলাইয়ে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া ২০২০ ইউরো হওয়ার কথা।

বিজ্ঞাপন

একনজরে ফল

মন্তব্য পড়ুন 0