default-image

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ সম্ভবত এ বছর আর হচ্ছে না। চলতি লিগ বাতিল করে আগামী বছর আবার লিগ শুরুর দাবি করেছে ক্লাবগুলো। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের ভবিষ্যত নির্ধারনের জন্য আয়োজিত আজকের সভায় এই দাবি তোলে ক্লাবগুলো।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভায় যোগ দেন প্রিমিয়ার লিগের ১৩টি ক্লাবের কর্মকর্তারা। সভার ক্লাবগুলো বলেছে, করোনার আগ পর্যন্ত লিগে খেলা হয়েছে মাত্র ৬ রাউন্ড। বাকি আছে ১৮ রাউন্ড। পরিস্থিতি যা তাতে কবে খেলা শুরু হবে ঠিক নেই। তাই এই লিগ এখানেই বাতিল করে আগামী বছর নতুন করে লিগ শুরু হোক। বর্তমান চুক্তিতেই তখন দেশি ফুটবলারদের খেলতে হবে। এই ফাঁকে বিদায় দেওয়া হবে বিদেশিদের।

ক্লাবের এই দাবির বিষয়টি পাঠানো হবে বাফুফের নির্বাহী কমিটিতে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত যে লিগ বাতিলের পক্ষেই আসবে তা এখন পরিস্কার। সভা শেষে লিগ কমিটির সভাপতি সালাম মুর্শেদী বলেন, ' আমরা চাই খেলা হোক। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে ক্লাবগুলো এ বছর আর লিগ খেলতে চায় না। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আমি দিতে পারব না। তাই বিষয়টা ফেডারেশেনর নির্বাহী কমিটতে পাঠাব।'

উত্তর বারিধারার সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সভা শেষে প্রথম আলোকে বলেন, 'সব ক্লাবই চায় এই লিগ বাতিল হোক। তাই মনে হয় না এ বছর আর লিগ হবে।' ব্রাদার্সের ম্যানেজার আমের খানের কথা, 'সবাই চায় চলতি লিগটা এখানেই বন্ধ করে আগামী বছর থেকে নতুনভাবে শুরু করতে। সব ক্লাবই বলেছে এই অবস্থায় কোনো কিছু করা সম্ভব নয়। বসুন্ধরার মতো ক্লাবও বলেছে আর্থিক সংকট দেখা দিচ্ছে। কাজেই এ বছর আর না খেলাই ভালো।'

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, এত দ্রুত লিগ বাতিল করলে ঘরোয়া খেলার কী হবে? সারা বছর কী করবেন ফুটবলাররা? তা ছাড়া প্রিমিয়ার লিগ বন্ধ হয়ে গেলে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের কী হবে? তখন ওই লিগও হয়তো হবে না। সব মিলিয়ে কোনোরকম অপেক্ষা না করে বাংলাদেশের ফুটবল আগ বাড়িয়ে চূড়ান্ত লকডাউনেই চলে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0