বার্তোমেউ পদত্যাগ করলেও বার্সায় থাকবেন না মেসি

বার্সা ছাড়ার পথে কোনোভাবেই আটকানো যাবে না মেসিকে।
বার্সা ছাড়ার পথে কোনোভাবেই আটকানো যাবে না মেসিকে।ছবি : এএফপি
বিজ্ঞাপন

মেসি বার্সা ছাড়ার জন্য ক্লাব সভাপতিকে বুরোফ্যাক্স করেছেন, এমন খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাজারো গুঞ্জনে মুখরিত হয়ে উঠেছে ফুটবলপাড়া। বার্সা সমর্থকদের মুখে ঘোর অমানিশা। অনেকে অতি আশাবাদী হয়ে ভাবছেন, এটা হয়তো ক্লাব সভাপতিকে তাড়ানোর জন্য মেসির একটা পরিকল্পনা। কিন্তু সম্প্রতি যে খবর এসেছে, তাতে বার্সা সমর্থকদের আরও হতাশ হতে হবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্প্যানিশ রেডিও ‘ওন্দা চেরো’র ক্রীড়া বিভাগের প্রধান আলফ্রেডো মার্তিনেজ একটা টুইটে নিশ্চিত করেছেন, মেসি কোনো ‘নাটক’ করছেন না। বার্তোমেউকে সরানোর কোনো ফন্দিও নয় এটা। বার্তোমেউয়ের থাকা বা না থাকার সঙ্গে মেসির এই সিদ্ধান্তের কোনো সম্পর্ক নেই। অর্থাৎ বার্তোমেউ যদি শেষমেশ ক্লাব ছেড়ে চলেও যান, তাও মেসিকে আর ফিরে পাবে না বার্সেলোনা। টুইটে তিনি লিখেছেন, 'যারা ভাবছেন যে পরিস্থিতির পরিবর্তন হবে, আসলে তেমন কিছুই হবে না। মেসি অপরিবর্তনীয় এক সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন। এটা বার্তোমেউকে সরানোর কোনো ফন্দি নয়। বার্তোমেউ সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেও মেসি তাঁর সিদ্ধান্তে অনড় থাকবেন, আর বার্সায় খেলবেন না। ও আর কখনই বার্সার জার্সি গায়ে দেবে না। দুঃখজনক হলেও ব্যাপারটা সত্যি।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
মেসি কোনো ‘নাটক’ করছেন না। বার্তোমেউকে সরানোর কোনো ফন্দিও নয় এটা। বার্তোমেউয়ের থাকা বা না থাকার সঙ্গে মেসির এই সিদ্ধান্তের কোনো সম্পর্ক নেই।

এই আলফ্রেডো মার্তিনেজই গত রাতে বোমাটা ফাটিয়েছিলেন। বলেছিলেন, মেসির ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা। মেসির বার্সা ছাড়ার সিদ্ধান্তের খবর নিশ্চিত করে টুইট করেন, ‘বার্সা সমর্থকদের জন্য আজকের দিনটা খুব দুঃখের। লিওনেল মেসি জানিয়ে দিয়েছেন তিনি আর বার্সায় থাকতে চান না। ২৯ বছর পেশাদার স্কোয়াডে থাকার পর ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়টি যেতে চান, বার্তোমেউ থাকবেন।'

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মেসি বার্সা ছেড়ে কোথায় যাবেন? এমন প্রশ্নে সবচেয়ে জোরেশোরে শোনা যাচ্ছে ম্যানচেস্টার সিটির নাম। দলটা এর মধ্যেই মেসির সঙ্গে ব্যক্তিগত চুক্তির ব্যাপারে ঐক্য মত্যে পৌঁছেছে বলে খবর। বার্সা বিষয়ক আরেক নির্ভরযোগ্য সাংবাদিক, ইএসপিএন ও স্পোর্তের স্যামুয়েল মার্সডেন জানিয়েছেন, মেসির সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিই করতে চায় সিটি। তিন বছর সিটিতে খেলার পর মেসি যেন সিটির মালিকানাধীন এমএলএসের ক্লাব নিউ ইয়র্ক সিটিতে যেতে পারেন, সে ব্যাপারটাও চুক্তিতে উল্লিখিত থাকবে।
যা-ই হোক না কেন, বার্সার জন্য কোনো খবরটাই সুখকর নয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন