কোন প্রাপ্তিটা বড় করে দেখবেন বার্সেলোনা কোচ লুইস এনরিকে? সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা নয় ম্যাচ জিতে রিয়াল মাদ্রিদের ১ পয়েন্ট পেছনে চলে আসা? আরেকটি মেসিময় রাত? নাকি ছয় ম্যাচ পর লুইস সুয়ারেজের গোলখরা কাটানো? যেটাই হোক, পরশু অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠ থেকে অনেক কিছু নিয়েই ফিরেছে বার্সেলোনা। ৫-২ গোলের জয়ে যে লা লিগা জেতার স্বপ্নে আরেকটু রং লাগল!
মেসির প্রথম গোলটা অবশ্য ভাগ্যপ্রসূত, ১৫ মিনিটে ফ্রি-কিকটা প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার লাপোর্তের গায়ে লেগে ঢুকে যায় জালে। ২৬ মিনিটেই সুয়ারেজ পেয়েছেন অনেক স্বস্তির এক গোল। তবে ৫৯ থেকে ৬৬ মিনিট পর্যন্ত মোটামুটি একটা পাগুলে সময় গেছে, চার-চারটি গোল হয়েছে এই সময়ে। বিলবাওয়ের মিকেল রিকোর গোলে শুরু, ৬৬ মিনিটে আবার বিলবাওয়ের আদুরিজ গোল করার পর স্কোরলাইন ৪-২! এর মধ্যে বার্সার হয়ে গোল করেছেন নেইমার, আরেকটি আত্মঘাতী, যদিও ওটা মেসিরও হতে পারত। ৮৬ মিনিটে পেদ্রো গোল করে বিলবাওয়ের কফিনে ঠুকে দিয়েছেন শেষ পেরেক।
ম্যাচ শেষে এনরিকে উচ্ছ্বাস লুকিয়ে রাখতে পারেননি, ‘মেসিকে কোচিং করাতে পারা বড় গর্বের বিষয়। পুরো দলটাকেই।’ সুয়ারেজ বললেন গোলখরা তাঁকে কতটা উদ্বিগ্ন করে তুলেছিল, ‘আমি নিজের কড়া সমালোচক। নিজের ওপরে খুবই রাগ হচ্ছিল আমার (গোল না পেয়ে), তবে আমি জানতাম গোল আসবে। আমি স্নায়ুচাপে ভুগিনি, তবে দলকে সাহায্য করতে না পারায় খানিকটা উদ্বেগের মধ্যে ছিলাম।’ এএফপি।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন