বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের স্ট্রাইকার আর্লিং হরলান্ড।
বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের স্ট্রাইকার আর্লিং হরলান্ড।ছবি: টুইটার

নতুন সভাপতি হিসেবে হোয়ান লাপোর্তা আসার পর থেকেই বার্সেলোনায় হাওয়া বদল শুরু হয়েছে যেন। হাজারো ঋণে জর্জরিত একটা ক্লাব, যারা কি না কয়েক মাস আগেও দেউলিয়া হওয়ার শঙ্কায় ছিল, তারাই এখন নতুন সভাপতির অধীনে স্বপ্ন দেখছে আর্লিং হরলান্ডকে পাওয়ার।

সেই হরলান্ড, যার পেছনে ছুটছে ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি, রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাব। লাপোর্তা এসে কাতালানদের স্বপ্ন দেখিয়েছেন, হরলান্ডের গায়ে বার্সার জার্সি চাপানো সম্ভব। যেভাবেই হোক, টাকাপয়সা জোগাড় করে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই স্ট্রাইকারকে দলে আনবেনই তিনি।

কিন্তু শুধু টাকা দিয়েই কি হরলান্ডকে বার্সায় আনা সম্ভব? টাকা তো ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসিরও আছে। বলা যেতে পারে, হয়তো বর্তমান পরিস্থিতিতে বার্সেলোনার চেয়ে বেশিও আছে। এই অবস্থায় ডর্টমুন্ডের এই প্রতিভাধর স্ট্রাইকারকে পেতে বার্সাকে লোভ দেখাতে হবে অন্য কিছুর। যে ‘মোহন বাঁশি’টা শুধু বার্সেলোনার কাছেই আছে, চেলসি বা সিটির মতো অন্যান্য আগ্রহী ক্লাবের নেই। আর সেই মোহন বাঁশির নাম লিওনেল মেসি।

বিজ্ঞাপন

লিওনেল মেসির সঙ্গে খেলার ইচ্ছা বিশ্বের প্রায় সব খেলোয়াড়েরই আছে, হরলান্ডও তার ব্যতিক্রম নন। মেসির টানে তাই হরলান্ড বার্সায় আসতেই পারেন। কিন্তু সেই মেসিই যদি মৌসুম শেষে দলে না থাকেন? তখন?

স্প্যানিশ কিছু সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মেসি যদি মৌসুম শেষে বার্সায় না থাকেন, হরলান্ডও কাতালান ক্লাবটিতে আসবেন না। টাকা তো সিটি বা চেলসির মতো ক্লাবে গেলেও পাওয়া যাবে। বার্সায় আসার পেছনে যেকোনো খেলোয়াড়ের মুখ্য উদ্দেশ্য থাকে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই খেলোয়াড়টির সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করার ইচ্ছা। সেটাই যদি না হয়, হরলান্ড তাহলে বার্সার আসবেন কেন?

এই ব্যাপারটাই পরিষ্কার করেছেন মিদিয়াসেত স্পোর্ত, দেপোর্তেস কুয়াত্রো ও আরএসিওয়ানের বার্সেলোনাভিত্তিক সাংবাদিক দাভিদ বার্নাব্যু রিভোর্তের। একই মতামত উনিভার্সিতাত অতোনমাস দে বার্সেলোনা, টিওয়াইসি স্পোর্ত ও কানাল ২৬–এর সাংবাদিক মিগেল ব্লাসকেজের। দুজনই একই খবর দিয়েছেন গতকাল। জানিয়েছেন, মৌসুম শেষে মেসিকে ধরে না রাখতে পারলে হরলান্ডকে পাওয়ার আশাও ছেড়ে দিতে পারে বার্সেলোনা।

দাভিদ বার্নাব্যু রিভোর্তের জানিয়েছেন, আপাতত হরলান্ডের ইচ্ছা মেসির সঙ্গে কয়েক বছর খেলা। এরপর মেসি চলে গেলে তিনি দলের সবচেয়ে বেশি বেতনভোগী খেলোয়াড় হতে চান। মেসির কাছ থেকে ব্যাটন নিয়ে হতে চান বার্সেলোনার মাঠের নেতা। রিভোর্তেরের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন মিগেল ব্লাসকেজও। দুজনের কথাই এক, মেসি না থাকলে হরলান্ড আসবেন না। তাই হরলান্ডকে পেতে চাইলে বার্সাকে নিশ্চিত করতে হবে মেসি যেন কোনোভাবেই ক্লাব না ছাড়েন।

এর মধ্যেই বার্সেলোনার কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা করে এসেছেন হরলান্ডের বাবা আলফি ইঙ্গ ও মুখপাত্র মিনো রাইওলা। শুধু বার্সাই নয়, রিয়াল মাদ্রিদেও গিয়ে দেখা করে এসেছেন এই দুজন। শোনা যাচ্ছে, লন্ডনে গিয়ে চেলসি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুলের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও দেখা করে আসবেন এই দুজন। যে ক্লাবটা হরলান্ডের টেবিলে সবচেয়ে লোভনীয় প্রস্তাব রাখবে, হরলান্ড যাবেন সেখানেই।

দেখা যাক, বার্সা এখন মেসিকে আটকে রাখতে পারে কি না।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন