বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

লিভারপুলের হয়ে প্রিমিয়ার লিগ ও চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন ভাইনালডম। নেদারল্যান্ডস জাতীয় দলেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন এই মিডফিল্ডার। কিন্তু পিএসজিতে নিজের দক্ষতা দেখানোর সুযোগই পাচ্ছেন না। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ম্যাচ খেলতে এখন জাতীয় দলের সঙ্গে আছেন। আর সেখানেই জমে থাকা রাগ–ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ভাইনালডম।

আজ জিব্রাল্টার বিপক্ষে মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস। ম্যাচ–পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে ক্লাবজীবন নিয়েও কথা বলেছেন ভাইনালডম, ‘আমি বলতে পারব না যে আমি সম্পূর্ণ সুখী। যে পরিস্থিতিতে আছি, সেটা চাইনি। গত কয়েক বছরে আমি অনেক খেলেছি। সব সময় ফিট থেকেছি এবং ভালো করেছি। এটা (নিয়মিত খেলতে না পারা) ভিন্ন এক অনুভূতি এবং এতে অভ্যস্ত হতে সময় লাগবে। আমি (ক্যারিয়ারের) নতুন এই ধাপের দিকে চেয়ে আছি এবং কী ঘটে, তা দেখতে চাই। এটা খুব কঠিন।’

default-image

পিএসজির একাদশে সামনে মেসি, নেইমার ও এমবাপ্পের জায়গা পাকা। তাঁদের সঙ্গে আনহেল দি মারিয়াকেও রাখছেন পচেত্তিনো। ফলে মাঝমাঠে মাত্র দুজন রাখা সম্ভব। আর সে ক্ষেত্রে পচেত্তিনোর মূল পছন্দ মার্কো ভেরাত্তি ও ইদ্রিসা গানা গে। আন্দের এরেরা, লিয়ান্দ্রো পারেদেস, ইউলিয়ান ড্রাক্সলারদের মতো তাই বেঞ্চেই সময় কাটাতে হচ্ছে ৩০ বছর বয়সী ভাইনালডমকে।

নিজের দুঃখের কথা জানালেও লড়াই চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন ভাইনালডম। পিএসজি কোচ মরিসিও পচেত্তিনোর দিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েও দিয়েছেন, ‘এটাই ফুটবল এবং এটা সামলানো শিখতে হবে আমাকে। আমি একজন লড়িয়ে। আমাকে ইতিবাচক থাকতে হবে এবং পরিস্থিতি বদলাতে হবে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন