বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

আগামীকাল লিগে কাদিজের মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ। এই ম্যাচের আগে বড় ধাক্কা খেয়েছে দলটি। এমনিতেই চোট করিম বেনজেমা ও দানি কারভাহালকে এই ম্যাচের জন্য অনিশ্চিত করে তুলেছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ক্লাবের ছয় খেলোয়াড়। লুকা মদরিচের করোনা হয়েছিল বলে জানা গেলেও পরে নেগেটিভ ফল এসেছে। কিন্তু গায়ে জ্বর থাকায় কালকের ম্যাচে মদরিচ যে থাকবেন না, সেটা নিশ্চিত করেছেন আনচেলত্তি।

ম্যাচ–পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আনচেলত্তিকে জাভির শিরোপার আশা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, বার্সেলোনা এখনো রিয়ালের শিরোপার লক্ষ্যে বাধা কি না। উত্তরে কোনো লুকোছাপা করেননি আনচেলত্তি, ‘না, এখন তারা সরাসরি প্রতিপক্ষ নয়। কারণ, তারা এখন সেভিয়া, আতলেতিকো মাদ্রিদ, বেতিসেরও পেছনে। তবে ওদের শেষ পর্যন্ত লড়াই করার ক্ষমতা আছে। আর আমি যদি বার্সেলোনা কোচ হতাম, তাহলে আমি এ কথাই বলতাম।’

default-image

লা লিগায় অনেক দূর এগিয়ে থাকায় আপাতত অন্য প্রতিযোগিতা নিয়েও মাথা ঘামাতে পারছেন। এ কারণেই চ্যাম্পিয়নস লিগ ও কোপা দেল রে নিয়েও কথা বলেছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগ গত সপ্তাহে রিয়ালকে চমক উপহার দিয়েছে। প্রথম ড্রতে শেষ ষোলোর প্রতিপক্ষ হিসেবে বেনফিকাকে পেয়েছিল রিয়াল। কিন্তু কারিগরি ত্রুটির কারণে আবার ড্র অনুষ্ঠিত হলে মেসি-রামোসের পিএসজিকে নতুন প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে লস ব্লাঙ্কো।

তারকাভারে সবচেয়ে সমৃদ্ধ এক দলকে প্রতিপক্ষকে পেয়ে ড্র নিয়ে কিছুটা হলেও হতাশ আনচেলত্তি, ‘ড্রয়ের ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক। কিন্তু এ নিয়ে আরও পরে ভাবব। তবে ম্যাচটা খুব কঠিন আর রোমাঞ্চকর হবে। ইউরোপের অন্যতম সেরা এক দলের সঙ্গে খেলাটা উত্তেজনাকর এবং আমাদের পরীক্ষা নেবে।’

default-image

পিএসজি ম্যাচের আগেই অন্য এক প্রতিযোগিতা নিয়ে ব্যস্ত হতে হবে আনচেলত্তিকে। আগামী ৫ জানুয়ারি কোপা দেল রের শেষ ৩২-এ খেলবে রিয়াল। প্রতিপক্ষ স্পেনের তৃতীয় স্তরের ক্লাব আলকয়ানো। কিন্তু এই দলের কাছেই গত মৌসুমে একই ধাপে হেরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ।

এ ম্যাচ নিয়ে আনচেলত্তির উপলব্ধি, ম্যাচটা আরেকটু আগে হলেই ভালো হতো, ‘আমার জন্য ম্যাচটা একটু দেরিতে হয়ে যাচ্ছে (বাংলাদেশ সময় রাত আড়াইটা)। স্প্যানিশদের জন্য হয়তো নয়, কিন্তু অধিকাংশ ইতালিয়ান এই সময়ে ঘুমিয়ে যায়। কিন্তু কী করার আছে?’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন