বার্সেলোনাকে ছাড়তে হচ্ছে লওতারোর আশা?

লওতারোকে পাাচ্ছে না বার্সেলোনা?
লওতারোকে পাাচ্ছে না বার্সেলোনা?ফাইল ছবি, রয়টার্স
বিজ্ঞাপন

লিওনেল মেসিকে নিয়ে সমস্যাটা তো আপাতত মিটল, কিন্তু তারপরেও এবারের গ্রীষ্মটা বার্সেলোনার জন্য খুব একটা সুবিধার হতে যাচ্ছে বলে মনে হয় না! ক্রমেই কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে যাচ্ছে সবকিছু। বার্সা খুব করে চাইছিল লওতারো মার্তিনেজকে ন্যু ক্যাম্পে নিয়ে আসতে। সে আশার গুড়ে বালি পড়তে যাচ্ছে বলেই মনে হয়। এবারের দলবদলে লওতারোকে পাওয়ার সম্ভাবনা শেষ হয়ে গেছে, এমনটাও বলা যায়।

এটা ঠিক যে লওতারোকে পাওয়ার আশা এখনো ছেড়ে দেয়নি বার্সেলোনা। তবে এটা বুঝতে পেরেছে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে পাওয়ার বিষয়টি বেশ জটিল হয়ে গেছে। ইন্টার মিলান তো ঘোষণাই দিয়েছে—লওতারো বিক্রির জন্য নয়! এই অবস্থান থেকে ইন্টার একটা কারণেই শুধু সরে আসতে পারে। বার্সেলোনা তাঁর জন্য যদি কমপক্ষে ৯ কোটি ইউরো খরচ করে। অন্যদিকে ইতালির সংবাদমাধ্যমের খবর, লওতারোর এজেন্ট ইন্টার মিলানের সঙ্গে চুক্তি নবায়নের বিষয়ে কথা বলেছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

লওতারোকে পাওয়ার অভিযান বার্সেলোনা শুরু করেছিল সদ্য শেষ হওয়া মৌসুম থেকেই। একটা সময় মনে হচ্ছিল আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে পেতেও যাচ্ছে তারা। কিন্তু হঠাৎ করেই তাঁকে পাওয়ার লড়াইয়ে নামে ম্যানচেস্টার সিটি। সুযোগ বুঝে ইন্টার মিলানও দামটা দিয়েছে বাড়িয়ে। আর এখন তো তাঁর এজেন্ট বলছেন অন্য কথা, ‘এই মুহূর্তে লওতারো ইন্টার থেকে কোথাও যাচ্ছে না।’

বার্সেলোনা যখন লওতারোকে পাওয়া নিয়ে দোলাচলে, স্পেনের সংবাদমাধ্যম দিয়েছে আরেকটি খবর। তাঁকে পেতে নাকি লড়াইয়ে নেমেছে রিয়াল মাদ্রিদও। শুধু বার্সা, রিয়াল আর ম্যান সিটি কেন; লওতারোকে ইউরোপের যেকোনো বড় ক্লাবই পেতে চাইবে। আর্জেন্টিনার রেসিং ক্লাব থেকে ইন্টারে নাম লিখিয়েছিলেন ২০১৮ সালে। প্রথম মৌসুমে সান সিরোর দলটির হয়ে ৩৫ ম্যাচ খেলে করেছেন ৯ গোল। থিতু হয়ে পরের মৌসুমে দেখা দিয়েছেন দুর্দান্ত রূপে। ৪৯ ম্যাচ খেলে ২১ গোল তারই প্রমাণ।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শুধু গোল করাই নয়, গোল করাতেও অবদান রাখছেন লওতারো। গত মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সতীর্থদের আটটি গোলে অবদান রেখেছেন তিনি। ধীরে ধীরে হয়ে উঠছেন নিখুঁত এক ফরোয়ার্ড। এমন একজনকে তো যেকোনো বড় ক্লাবই পেতে চাইবে। তবে তাঁকে পেতে রিয়াল মাদ্রিদের আগ্রহের বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন লওতারোর এজেন্ট, ‘না, না এমন কিছু হয়নি। এটা সত্যি নয়।’

বার্সেলোনা যখন গত মৌসুমের শেষের দিকে লওতারোকে পেতে আগ্রহ দেখিয়েছিল, লওতারোও যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি চাইলেই তো আর হবে না, দুই ক্লাবকে আসতে হবে সমঝোতায়। সেই সমঝোতাটা কবে হয় সেটাই দেখার বিষয়। স্পেনের সংবাদমাধ্যম অবশ্য বলছে, আজ হোক আর কাল লওতারোর পরবর্তী ঠিকানা হবে ন্যু ক্যাম্পই।

একটি কথা অবশ্য থেকেই যায়—লওতারো বার্সেলোনায় যাওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছিলেন লিওনেল মেসির জন্য। জাতীয় দলের অধিনায়কের সঙ্গে খেলতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু মেসি যদি বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তি না করে আগামী মৌসুমে অন্য কোথাও চলে যান তাহলে লওতারোর ন্যু ক্যাম্পে যাওয়ার আগ্রহটা কি আর থাকবে!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন