এশিয়া থেকে নিশ্চিতভাবে চারটি দল খেলবে বিশ্বকাপে। প্লে-অফ পর্ব পেরিয়ে আরও একটি দলের বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ রয়েছে। বাছাইপর্বের তৃতীয় রাউন্ডের দুই গ্রুপে আছে ছয়টি করে দল। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে প্রতিটি দল ম্যাচ খেলবে দশটি করে। দুই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ পাবে বিশ্বকাপের টিকিট। দুই গ্রুপের তৃতীয় দলের সামনেও থাকবে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ। এর জন্য বাধা পেরোতে হবে প্লে-অফ পর্বের। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে ২০২২-এর মার্চ পর্যন্ত চলবে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। শুধু চলতি বছর ডিসেম্বর মাস বাদ দিয়ে প্রতি মাসেই অনুষ্ঠিত হবে দুটি করে ম্যাচ।

গ্রুপ ‘এ’: ইরান, দক্ষিণ কোরিয়া, আরব আমিরাত, ইরাক, সিরিয়া ও লেবানন

গ্রুপ ‘বি’: জাপান, অস্ট্রেলিয়া, সৌদি আরব, চীন, ওমান ও ভিয়েতনাম

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন