রাশিয়ার স্ট্রাইকার আরতেম জিউবা (ডানে)। বিতর্কে জড়িয়ে বাদ পড়লেন তিনি।
রাশিয়ার স্ট্রাইকার আরতেম জিউবা (ডানে)। বিতর্কে জড়িয়ে বাদ পড়লেন তিনি। ফাইল ছবি: রয়টার্স

ফিফার জানালা আবার খুলতে যাচ্ছে। এই সপ্তাহের শেষেই আন্তর্জাতিক সূচিতে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন ফুটবলাররা। ২০ নভেম্বরের মধ্যেই তিনটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে রাশিয়া। বিব্রতকর ঘটনাটি না ঘটলে আরতেম জিউবাকে নিশ্চিত দেখা যেত রাশিয়া দলে। হাজার হলেও অধিনায়ক তিনি। কিন্তু দেশটির জাতীয় দলের পক্ষ থেকে কাল বলে দেওয়া হয়েছে নেতিবাচক প্রচারণার জন্য জিউবাকে স্কোয়াডে রাখা হবে না।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, জিউবার একটি ব্যক্তিগত অপ্রীতিকর ভিডিও অনলাইনে ফাঁস হওয়ার পর এ বিবৃতি দেয় রাশিয়ান ফুটবল। রাশিয়ান সংবাদ সংস্থা তাস জানিয়েছে, ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা গেছে, তিনি দেখতে জিউবার মতো। জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গের এ স্ট্রাইকার ভিডিওতে বিতর্কিত কী করেছেন, তা উল্লেখ করা হয়নি। ভিডিওটি কীভাবে ফাঁস হলো, সেটিও নিশ্চিত করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

অন্যান্য সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ফাঁস হওয়া সেই ভিডিওতে জিউবার মতো দেখতে এক লোককে স্বমেহন করতে দেখা গেছে। ভিডিওটি স্বাভাবিকভাবেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এ বিষয়ে ৩২ বছর বয়সী জিউবার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল রয়টার্স। কিন্তু তাঁর জনসংযোগ দল ক্লাব জেনিতের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা অনুরোধ করেছে।

রাশিয়া জাতীয় দলের কোচ স্তানিস্লাভ চেরচেশভ বলেন, ‘নভেম্বরে মলদোভা, তুরস্ক ও সার্বিয়ার সঙ্গে ম্যাচ রয়েছে। আমাদের এ নিয়ে মনোযোগী থাকতে হবে। বাইরের কোনো কিছুতে মনঃসংযোগ হারাতে চাই না আমরা। ঘটনার ফল হিসেবে জিউবাকে দলে না ডাকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এটা দলকে যেমন নেতিবাচক বিষয় ও আলোচনা থেকে রক্ষা করবে, তেমনি খেলোয়াড়কেও।’

default-image

সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা নাগাদ ১২ সেকেন্ডের ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে রাশিয়ায়। অনেকেই মনে করছেন ভিডিওটি গত বছর ডিসেম্বরে ধারণ করা। রাশিয়ার হয়ে ৪৭ ম্যাচ খেলা জিউবাকে নগ্ন অবস্থায় ভিডিওতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে অন্যান্য সংবাদমাধ্যম। চেরচেশভ জানিয়েছেন, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে’ই তাঁকে দলে রাখা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0