বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১৫ বছর ধরে বেশির ভাগ সময় সোনার জুতার এ লড়াই মূলত লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। মেসি জিতেছে ৬ বার, রোনালদো ৪ বার। এ দুজনের বাইরে এই সময়ে ‘ইউরোপিয়ান গোল্ডেন সু’ জেতার অভিজ্ঞতা হয়েছে শুধু দিয়েগো ফোরলান (১), লুইস সুয়ারেজ (২), চিরো ইম্মোবিলে ও লেভানডফস্কির (১)।

default-image


গত মৌসুমে ৪১ গোল করে ক্যারিয়ারের প্রথমবার সোনার জুতা জিতেছিলেন লেভানডফস্কি। এবার এরই মধ্যে ৩২ ম্যাচে ৩৪ গোল হয়ে গেছে তাঁর। লিগে বায়ার্নের আরও দুটি ম্যাচ বাকি। সোনার জুতার এই লড়াইয়ে লেভার কাছাকাছি আছেন লাৎসিওর ইতালিয়ান স্ট্রাইকার চিরো ইম্মোবিলে ও রিয়াল মাদ্রিদের করিম বেনজেমা। ২৭ গোল ইম্মোবিলের, বেনজেমার ২৬। লিগে লাৎসিওর এখনো তিনটি ম্যাচ বাকি, রিয়াল মাদ্রিদের বাকি চারটি। তারপরও এ দুজনের পক্ষে লেভাকে ধরা কিছুটা কঠিনই। অবশ্য এর মধ্যে যদি আবার দুজনের কেউ কোনো ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে ফেলেন, তাহলে অন্য কথা। একই সম্ভাবনা লেভার ক্ষেত্রেও থাকছে যদিও।

এই মৌসুমে ৩৩ গোল করেছেন রেড স্টার বেলগ্রেডের নরওয়েজিয়ান স্ট্রাইকার ওহি ওমুইওহানফো। কিন্তু উয়েফার রেটিং বিচারে সার্বিয়ার সুপার লিগায় প্রতিটি গোলের জন্য দেওয়া হয় ১.৫ পয়েন্ট। যেখানে ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোয় প্রতিটি গোলের জন্য বরাদ্দ ২ পয়েন্ট। এ জন্য লেভার পয়েন্ট ৬৮, ইম্মোবিলের ৫৪, বেনজেমার ৫২ হলেও ওমুইওহানফোর পয়েন্ট ৪৯.৫। ৩৩ গোল করেও আপাতত তিনি এ লড়াইয়ে অনেক পেছনে।

default-image


২৪ গোল করে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে এ তালিকায় আপাতত পঞ্চম স্থানে আছেন পিএসজির ফরাসি স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপ্পে। এরই মধ্যে শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলা পিএসজির লিগে ম্যাচ বাকি আরও তিনটি।
দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত লেভাকে পেছনে ফেলে অন্য কেউ সোনার জুতা জিততে পারেন কি না।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন