আইএসএল লিগ শিল্ড জয়ের পর মুম্বাই সিটির খেলোয়াড়দের উল্লাস
আইএসএল লিগ শিল্ড জয়ের পর মুম্বাই সিটির খেলোয়াড়দের উল্লাসছবি: টুইটার

সিদ্ধান্তটা হয়েছিল ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে। এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছিল, চ্যাম্পিয়নস লিগ গ্রুপ পর্বের ৩২ দল থেকে ৪০ দলের প্রতিযোগিতায় উন্নীত করা হয়েছে।

এতে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের (আইএসএল) ক্লাবগুলোর জন্য চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার পথটা তুলনামূলক সহজ হয়ে আসে। বলা হয়, আইএসএলের (ইন্ডিয়ান সুপার লিগ) লিগ পর্বে চ্যাম্পিয়ন দল এ বছর সরাসরি চ্যাম্পিয়নস লিগ গ্রুপ পর্বে খেলতে পারবে।

এ নিয়মের বদৌলতে কাল এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস লিগের টিকিট কাটল মুম্বাই সিটি।
জনপ্রিয়তায় হয়তো ইউরোপের ধারেকাছেও নেই, কিন্তু কাগজে–কলমে মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের মানদণ্ডে এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগ সমান মর্যাদার।

কাল আইএসএলের গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মোহনবাগানকে ২–০ গোলে হারায় শীর্ষে থাকা মুম্বাই। এতে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার টিকিট পেয়ে যায় ম্যানচেস্টার সিটির ভারতীয় শাখা অফিস—মুম্বাই সিটি।

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার সিটির ‘মাতা’ প্রতিষ্ঠান সিটি ফুটবল গ্রুপের বেশির ভাগ শেয়ারের মালিক আবুধাবির শেখ মনসুর আল নাহিয়ান। দুই বছর আগে মুম্বাই সিটির ৬৫ শতাংশ শেয়ার কিনে নেন তিনি।

ম্যানচেস্টার সিটির পাশাপাশি মেলবোর্ন, নিউইয়র্ক, মুম্বাইসহ গোটা বিশ্বে সিটি ফুটবল গ্রুপের অধীনে এমন ১০টি ক্লাব আছে।

বার্সেলোনা যুব দল ও মূল দলের সহকারী কোচের দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতালব্ধ স্প্যানিশ কোচ সের্হিও লোবেরার অধীনে এবার খেলছে মুম্বাই সিটি। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচের আগে পয়েন্টের হিসাবে মোহনবাগান ৩ পয়েন্ট এগিয়ে ছিল মুম্বাইয়ের চেয়ে।

কিন্তু লিগে দুই দলের আগের ম্যাচে ১-০ গোলে মুম্বাই জেতায় কাল ম্যাচের আগের সমীকরণটা ছিল এই যে মুম্বাই জিতলেই উঠে যাবে শীর্ষে। কারণ, সে ক্ষেত্রে দুই দলের পয়েন্ট সমান হলেও মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসাবে মোহনবাগানের চেয়ে এগিয়ে থাকবে মুম্বাই।

সেনেগালিজ ডিফেন্ডার মোরতাদা ফল ও নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড বার্থোলমো ওগবেচের গোলে লক্ষ্যপূরণ হয় লোবেরোর দলের। চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা করে নেওয়ার পাশাপাশি চার দলের একটি হিসেবে লিগের প্লে–অফেও জায়গা করে নিয়েছে তারা।

২০১৪ সালে আইএসএলের অভিষেক মৌসুমে প্রতিষ্ঠিত হওয়া মুম্বাইয়ে ইউরোপের খ্যাতিমান বেশ কিছু তারকা খেলেছেন। তবে তাঁদের প্রায় সবাই ক্যারিয়ারের সেরা সময় শেষ করে ভিড় জমিয়েছেন ইউরোপের তুলনায় কম প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ভারতের শীর্ষ লিগে।

আর্সেনালের হয়ে দুবার প্রিমিয়ার লিগজয়ী সাবেক সুইডিশ উইঙ্গার ফেড্রি লিউনবার্গ তারকা খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন মুম্বাইয়ের প্রথম মৌসুমে। দ্বিতীয় মৌসুমে আর্সেনাল, রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে শিরোপাজয়ী ও ফ্রান্সের হয়ে ইউরোজয়ী ফ্রান্সের সাবেক ফরোয়ার্ড নিকোলাস আনেলকাকে আনার ঘোষণা দিয়েছিল মুম্বাই।

২০১৬ সালে উরুগুইয়ান কিংবদন্তি দিয়েগো ফোরলান খেলে গেছেন এ ক্লাবে। পোর্তোর হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী জর্জ কস্তাকেও হেড কোচ হিসেবে পেয়েছে মুম্বাই।

আইএসএলের প্লে–অফে উন্নীত হওয়া বাকি তিন দল—মোহনবাগান (দ্বিতীয়), নর্থইস্ট ইউনাইটেড (তৃতীয়) ও গোয়া (চতুর্থ)। দুই লেগের সেমিফাইনালে গোয়ার মুখোমুখি হবে মুম্বাই। মোহনবাগানের প্রতিপক্ষ নর্থইস্ট ইউনাইটেড। ২০ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে মুম্বাই, তাদের সমান পয়েন্ট পেলেও মুখোমুখি লড়াইয়ে পিছিয়ে দুইয়ে মোহনবাগান।

জয়ের পর লোবেরো বলেন, ‘এটা আমাদের কাছে অনেক কিছু। কারণ, এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগের আগামী মৌসুমে দারুণ উত্তেজনা থাকবে। এখানে আশার পরই বুঝতে পেরেছিলাম লক্ষ্য অনেক ওপরে। কঠোর পরিশ্রম করে সবাই তা অর্জন করেছে।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন