বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ যেখানে বিদেশি দলের বিপক্ষে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ আয়োজন করতে ব্যর্থ হয়েছে, সেখানে আফগানিস্তান দুটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলে মাঠে নামবে। গতকাল তো দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত প্রীতে ম্যাচে ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে ৩-২ গোলে জিতেছে আফগানরা।

২৯ মে দুবাইয়ে আফগানদের আরেক প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুর। কাল প্রীতি ম্যাচে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে বাংলাদেশের আরেক প্রতিপক্ষ ওমান।

default-image

ভারত তো রীতিমতো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে ফুটবল কূটনীতিতে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের ব্যর্থতা। কাতারে গিয়ে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা ছাড়াও সেখানে অনুশীলনের কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু করোনার জন্য সেখানে গিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা ও পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেওয়া যাবে না বলে কাতার সফর বাতিল করে বাফুফে।

কিন্তু সেই দোহাতে গিয়েই প্রস্তুতি নিয়ে ২৮ মে ফিলিপাইনের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে ভারত। প্রশ্নটি এসেই যায়, আয়োজক কাতার বাংলাদেশকে যে প্রয়োজনীয় সুবিধা দিতে চায়নি, সেটি কীভাবে পেল ভারত?

বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইমের যুক্তি, ‘অন্য দেশ কী করল সেটা নিয়ে আমরা কিছু বলব না। আমাদের সঙ্গে কাতারের লিখিত যে আলোচনা হয়েছে, সেখানে উল্লেখ ছিল আমরা জিম, সুইমিংপুল ব্যবহার করতে পারব না। দলের সঙ্গে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করলে তারা এখানেই অনুশীলনের পক্ষে মত দেয়। এটা একটা সম্মিলিত সিদ্ধান্ত ছিল।’

বাংলাদেশের প্রস্তুতির সবেধন নীলমণি আগামীকাল শেখ জামাল ধানমন্ডির বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ। বিদেশি দলের বিপক্ষে যখন খেলা সম্ভব হয়নি, তাই আগামীকালের প্রস্তুত ম্যাচ নিয়েই ভাবছেন ডিফেন্ডার রহমত মিয়া।

default-image

আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে তিনি বলেন, ‘প্রীতি ম্যাচ প্রীতি ম্যাচই। এখানে কোন দল বিপক্ষে আছে, কত খারাপ দল বা ভালো দল, তা বিষয় না। মূল বিষয়টি হলো আমাদের ভুলগুলো কীভাবে শোধরাতে পারব বা আমরা কীভাবে ভালো করতে পারব। বিপক্ষ দল কোনো বিষয় না।’

শেখ জামালের বিপক্ষে ম্যাচ আয়োজন নিয়েও আছে কিছু প্রশ্ন। শেখ জামালের খেলোয়াড়েরা জৈব সুরক্ষাবলয়ে থাকেন কি না, প্রশ্নটা এখানেই।

সে ক্ষেত্রে জাতীয় দলের ফুটবলারদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা থেকে যায়। যদিও আজ সকালে জাতীয় দলের ম্যানেজার ইকবাল হোসেনের দাবি, ‘শেখ জামালের ফুটবলারদের করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছে। খেলোয়াড়েরা সবাই নেগেটিভ হয়েছে।’

৩০ মে কাতারে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। সফরসূচি দুদিন এগিয়ে এনে ২৮ মে কাতার যাচ্ছে জেমি ডের দল। সেখানে গিয়ে বিমানবন্দরে দেওয়া করোনার নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলেই অনুশীলন শুরু করতে পারবেন জামাল, তপু বর্মণেরা।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন