বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত আসরে কিংসকে ভুগিয়েছিল আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকার রাউল বেসেরার চোট। সে শিক্ষা নিয়ে বিদেশি খেলোয়াড় কোটায় এবার অতিথি হিসেবে আবদাল্লাহ ও ম্যাথিউকে নিয়েছে তারা। বুরুন্ডির স্ট্রাইকার আবদাল্লাহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের খেলোয়াড়।

৭ মে প্রিমিয়ার লিগে মুক্তিযোদ্ধার জার্সিতে কিংসের বিপক্ষে ২ গোল করে কিংস কর্মকর্তাদের চোখে পড়েন আবদাল্লাহ। এবার লিগের প্রথম পর্বে শেখ জামালের হয়ে খেলেছেন চিনেদু।

এ দুজনই ভিসা না পাওয়ায় কলকাতা যেতে পারেননি। কলকাতা থেকে কিংস দলের একজন বলেন, ‘সুদি আবদাল্লাহ ও চিনেদু ম্যাথিউ ভিসা না পাওয়ায় দলের সঙ্গে আসতে পারেননি। বৃহস্পতিবার ভিসা পাওয়ার কথা থাকলেও পাওয়া যায়নি। আশা করছি রোববার ভিসা পেলে সোমবার দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তাঁরা।’

default-image

এএফসি কাপে চারজন বিদেশি খেলতে পারবেন এক ম্যাচে, তবে বিদেশি নিবন্ধন উন্মুক্ত। আর এই সুযোগেই মোট ছয়জন বিদেশি নিয়ে যাচ্ছে কিংস, যা দলটির জন্য বিরাট স্বস্তি।

কেউ চোট পেলে বা অন্য কারণে খেলতে না পারলে ভালো বিকল্পও থাকছে। দলের নিয়মিত চার বিদেশি ব্রাজিলের রবসন ও মিগেল ফিগুয়েরার সঙ্গে ইরানের খালিদ শাফিহ এবং গাম্বিয়ার নুহা মারং।

আজ কলকাতায় যাওয়া ৪৬ জনের দলে খেলোয়াড় আছেন ২৬ জন। দলের সঙ্গে আছেন চারজন বল বয়ও। এর আগে জাতীয় দল বা অন্য কোনো ক্লাবের সঙ্গে বলবয়কে কখনো বিদেশ সফরে নিয়ে যেতে দেখা যায়নি।

কলকাতায় আজ অনুশীলন করবে না দল। রাতে আই লিগের অলিখিত ফাইনাল গোকুলাম কেরালা ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচ দেখার কথা দলের। এএফসি কাপে বসুন্ধরা গ্রুপের চার দলের একটি এই গোকুলাম।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন