বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইংলিশ ট্যাবলয়েড ‘দ্য সান’ লিখেছে, সাধের বাড়ি ছেড়ে ৩০ লাখ ডলারের আরেক বাড়িতে পরিবার নিয়ে উঠেছেন রোনালদো। কিন্তু কেন? আগের বাড়িতে এমন কী সমস্যা ছিল যে এক সপ্তাহেই সবকিছু গুটিয়ে আরেক জায়গায় চলে গেলেন?

দ্য সান জানিয়েছে, কারণ আর কিছুই নয়, ভেড়ার পাল! ভেড়ার পালের ডাকে ঘুম হচ্ছে না রোনালদো আর তাঁর পরিবারের। ভোরবেলা নাকি বাড়ির পাশে অনেক ডাকাডাকি করে ভেড়ার পাল, তাতেই ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে রোনালদোদের।

default-image

তবে শুধু ভেড়ার পালের কারণেই যে রোনালদো বাড়ি বদল করেছেন, তা নয়। সান আরও কিছু কারণ জানিয়েছে। বাড়িটিতে নাকি পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পাচ্ছিলেন না রোনালদোরা। বাড়িটির ঠিক সামনেই ফুটপাত দিয়ে প্রচুর লোক যাতায়াত করে।

নতুন বাসাটা যে খুব খারাপ, তা নয়। নতুন বাসাটাও পেয়েছেন চেশায়ারেই, এককালে ইউনাইটেডেরই সাবেক স্ট্রাইকার অ্যান্ডি কোলের বাড়ি ছিল সেটা। সিনেমা হল, সুইমিং পুল থেকে শুরু করে গ্যারেজ—সবই আছে। পুরো বাড়িটাই ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা-চাদরে আচ্ছাদিত থাকবে। বৈদ্যুতিক গেট, পর্যাপ্ত সিসিটিভি ক্যামেরার সুব্যবস্থাও আছে।

default-image

তবে সানের এমন প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছে রোনালদোর গণসংযোগ দল। পুরো প্রতিবেদনটাকেই বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে মেইল প্লাসকে জানিয়েছেন তাঁরা।

ওদিকে রোনালদোর সাবেক ইউনাইটেড সতীর্থ, ফরাসি লেফটব্যাক প্যাট্রিস এভরা এই খবরের পরিপ্রেক্ষিতে ইনস্টাগ্রামে এক হাস্যরসাত্মক ভিডিও পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, ভেড়ার পালের সঙ্গে একটা জাহাজে করে যাচ্ছেন এভরা। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘চিন্তা কেন, ভাই রোনালদো? তোমার যেন ভালো ঘুম হয়, সেই ব্যবস্থা করছি আমি!’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন