জিদানের দুশ্চিন্তা বাড়াবে ভারানের চোট।
জিদানের দুশ্চিন্তা বাড়াবে ভারানের চোট। ছবি: রয়টার্স

ইউরোপের ফুটবলের মৌসুমের শেষ দিক চলছে। আর কয়েকটা ম্যাচই বাকি আছে দলগুলোর। আর সেখানে রিয়াল মাদ্রিদ যে এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত লিগ আর চ্যাম্পিয়নস লিগের দৌড়ে এখনো খুব ভালোভাবে আছে, এ জন্যই সম্ভবত জিনেদিন জিদানকে কোচ হিসেবে বড় স্বীকৃতি দিয়ে দেওয়া যায়!

মৌসুমজুড়ে এমন সময় বলতে গেলে আসেইনি, যখন একাদশ গঠনের আগে পুরো দলকে ফিট পেয়েছেন জিদান। কখনো রক্ষণে সের্হিও রামোস কিংবা দানি কারভাহালদের কারও চোট, তো কখনো মাঝমাঠে চোটে ছিলেন ইসকো। আর আক্রমণে আর কেউ চোটে থাকুন বা না থাকুন, হাসপাতালের বিছানা প্রায় পুরো মৌসুম ‘দখল’ করে রাখার জন্য এদেন হ্যাজার্ড তো ছিলেনই! বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড অবশ্য দিন কয়েক হলো মাঠে ফিরেছেন। কিন্তু জিদানের চোট নিয়ে দুশ্চিন্তা যদি এখনো কাটে!

অন্য যে কারও চেয়ে অধিনায়ক রামোসের চোট গত কয়েক মাসে রক্ষণ নিয়ে জিদানের সবচেয়ে বড় মাথাব্যথা ছিল। কিন্তু সেন্টারব্যাক হিসেবে রাফায়েল ভারানের পারফরম্যান্স সে মাথাব্যথায় যা-ও কিছুটা ‘প্যারাসিটামলে’র মতো কাজ করেছিল, এখন সেই প্যারাসিটামলকে নিয়েও শঙ্কা জেগেছে।

বিজ্ঞাপন

রিয়াল মাদ্রিদ আজ জানিয়েছে, ডান পাশের কুঁচকির চোটে পড়েছেন ভারান। চোটটা একেবারে গুরুতর নয়, সপ্তাহ দুয়েকের মতো মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে ২৮ বছর বয়সী ফরাসি ডিফেন্ডারকে। কিন্তু সামনের দুই সপ্তাহই যে রিয়ালের মৌসুমের শিরোপা পাওয়া না পাওয়ার পথে ব্যবধান গড়ে দেওয়া দুই সপ্তাহ হতে পারে। ওদিকে রামোসেরও এখনো মাঠে ফেরা পুরোপুরি নিশ্চিত নয়।

আজ এক চিকিৎসাবিষয়ক বিবৃতিতে রিয়াল জানিয়েছে, অন্তত ১০ দিনের জন্য মাঠের বাইরে যাচ্ছেন ভারান। এই চোট পাওয়ার কারণেই গত শনিবার লিগে ওসাসুনার বিপক্ষে বিরতির পরই তুলে নেওয়া হয় ভারানকে। কিন্তু গতকাল চোটের অবস্থা বুঝতে আলট্রাসাউন্ড স্ক্যান করা হলেও কিছু বোঝা যায়নি। রিয়ালের চিকিৎসক দল আজ তাই ভারানের এমআরআই স্ক্যান করান, সেখানেই ধরা পড়ে অ্যাবডাকটর মাসলে ছোট্ট চিড় ধরেছে।

চোটটা গুরুতর নয়, কিন্তু চোটের সময়টা রিয়ালের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। আগামী বুধবার চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগ খেলতে চেলসির মাঠে যাবে জিদানের দল। প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে রিয়াল ১-১ গোলে ড্র করেছে, প্রতিপক্ষের মাঠে গোল পাওয়ায় ফাইনালে যাওয়ার সমীকরণে তাই এই মুহূর্তে এগিয়ে আছে চেলসি।

default-image

অন্যদিকে বুধবারের ওই ম্যাচের পর রোববার রিয়ালের জন্য লিগে অপেক্ষা করছে মহারণ। না, প্রতিপক্ষ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা কিংবা নগর প্রতিদ্বন্দ্বী আতলেতিকো মাদ্রিদ নয়, সেদিন রিয়ালের বিপক্ষে খেলবে সেভিয়া। ক্ষীরের মতো জমে যাওয়া স্প্যানিশ লিগের শিরোপাদৌড়ে এবার বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, আতলেতিকো মাদ্রিদ ও সেভিয়া—চার দলই আছে।

৩৮ ম্যাচের লিগে এই সপ্তাহের পর সব দলের আর চারটি করে ম্যাচ বাকি থাকবে। এই মুহূর্তে ৩৪ ম্যাচে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে আতলেতিকো আছে লিগশীর্ষে, ৩৪ ম্যাচে সমান ৭৪ পয়েন্ট রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার—মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসাবে এগিয়ে দুই নম্বরে রিয়াল, তিনে বার্সেলোনা। চারে থাকা সেভিয়া বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১টায় নামবে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠে, সে ম্যাচে জিতলে সেভিয়ার পয়েন্ট হবে ৩৪ ম্যাচে ৭৩!

আগামী শনিবার বার্সেলোনা মুখোমুখি হবে আতলেতিকো মাদ্রিদের, সেখানে আতলেতিকো না জিতলেই সবচেয়ে বেশি লাভ রিয়ালের। কিন্তু সেটির সুবিধা তুলে নিতে নিজেদেরও তো জিততে হবে। সেই চ্যালেঞ্জ সামনে নিয়ে রোববার রিয়াল খেলবে সেভিয়ার বিপক্ষে!

default-image

কিন্তু মাদ্রিদভিত্তিক স্প্যানিশ দৈনিক এএস জানাচ্ছে, ভারান চোটের কারণে চেলসির বিপক্ষে ম্যাচে তো থাকছেনই না, সেভিয়ার বিপক্ষেও তাঁর খেলার সম্ভাবনা কম। এমনকি ১৩ মে লিগে এরপরের ম্যাচে গ্রানাদার বিপক্ষেও ভারানের ফেরা নিয়ে সংশয় আছে বলে জানাচ্ছে মার্কা।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ভারান চোটে, ওদিকে রাইটব্যাক দানি কারভাহাল তো আগে থেকেই চোটে। কারভাহালের বদলি হিসেবে তরুণ রাইটব্যাক আলভারো অদ্রিওসোলা আছেন, কিন্তু মৌসুমজুড়ে কারভাহাল চোটে থাকার সময়ে অদ্রিওসোলার চেয়ে রাইট উইঙ্গার লুকাস ভাসকেজকেই রাইটব্যাক বানিয়ে খেলতে বেশি আগ্রহী ছিলেন জিদান। দুঃসংবাদ, সেই ভাসকেজও চোটে।

তবে রিয়াল সমর্থকদের এতটুকুতেই একেবারে আশা হারিয়ে ফেলার কিছু নেই। অন্তত মাদ্রিদেরই আরেক স্প্যানিশ দৈনিক মার্কা তেমনটাই জানাচ্ছে। তাদের খবর, রিয়াল অধিনায়ক রামোস ও গত দুই মৌসুমে রক্ষণের বাঁয়ে জিদানের বড় ভরসা ফারলাঁ মেন্দি চোট কাটিয়ে উঠেছেন, আজ দলের অন্যদের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন।

অনুশীলন সেশনটা পুরোপুরি তদারক করেছেন জিদান নিজেই। সে ক্ষেত্রে চেলসি ও সেভিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচে রামোস-মেন্দিকে পেলে তো জিদানের মাথাব্যথা এমনিই কমে যাচ্ছে!

তার ওপর রামোসের চোটে থাকার সময়ে রক্ষণে নাচো ও এদের মিলিতাও জুটি বেঁধে যেভাবে খেলেছেন, সেটি প্যারাসিটামল না হোক, জিদানের মাথাব্যথার ক্ষেত্রে ‘মাসাজ’ তো হওয়ারই কথা!

আক্রমণে সুখবর, গত কিছুদিনে চোট কাটিয়ে ফেরা এডেন হ্যাজার্ড গত শনিবার ওসাসুনার বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকে প্রায় ৭০ মিনিট খেলেছেন। যদিও মাঝমাঠে তরুণ প্রতিভাবান মিডফিল্ডার ফেদেরিকো ভালভার্দেকে পাওয়া নিয়ে শঙ্কা আছে। করোনায় আক্রান্ত উরুগুইয়ান মিডফিল্ডার এখনো দ্বিতীয় দফার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হওয়ার অপেক্ষায়।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন