বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ঘরের মাঠে পিএসজি দাপট দেখিয়েছে এটা বলা বাড়াবাড়ি হয়ে যাবে। বরং শুরুটা ভালো করেছে ক্লেরমঁ। কিন্তু শুরুতেই গোল আদায় করতে না পারার ভুলটা ভুগিয়েছে তাদের। ২০ মিনিটে গোল করে পিএসজিতে এগিয়ে দেন আন্দের এরেরা। ৩১ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করে ব্যবধান বাড়িয়ে দেন এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। এর পর আর ম্যাচে ফেরার সম্ভাবনা জাগাতে পারেনি ক্লেরমঁ।

দ্বিতীয়ার্ধে ইউলিয়ান ড্রাক্সলারের চমৎকার এক পাসে গোলের সামনে একা বল পেয়ে যান এমবাপ্পে। সেখান থেকে দলকে ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন এমবাপ্পে। ৫৫ মিনিটে নিজে গোল করার পর ৬৭ মিনিটে দলের চতুর্থ গোলেও ছিলেন অবদান ছিল এমবাপ্পের। ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ডের নেওয়া শট গোলকিপার ঠেকালেও ফিরতি বল চলে যায় ইদ্রিসা গেয়ের কাছে। ৪-০ গোলের এই অগ্রগামিতা শেষ মিনিট পর্যন্ত ধরে রেখেছে পিএসজি।

default-image

ওদিকে গত মৌসুমে লিগ হারানো জুভেন্টাস যেন হতাশার ঘোর কাটাতেই পারছে না! লিগে প্রথম ম্যাচে শেষ মুহূর্তে গোল করেও দলকে জেতাতে পারেননি রোনালদো। ভিএআর সে গোল বাতিল করে দেওয়ায় ম্যাচ ২-২ গোলে শেষ হয়। রোনালদোকে ছাড়া নেমে পরের ম্যাচে তো হেরেই গেছে তারা। আজ নাপোলির মাঠে সে দুঃসময় কাটিয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিয়েছিল জুভেন্টাস। ১০ মিনিটেই দলকে এগিয়ে দিয়েছেন আলভারো মোরাতা।

প্রথমার্ধের এ সুখ শেষ হয়েছে ৫৭ মিনিটে। মাত্তেও পলিতানোর গোলে সমতায় ফেরে নাপোলি। পুরো ম্যাচে দাপট দেখানো নাপোলি নিজেদের পুরস্কার বুঝে নিয়েছে ৮৫ মিনিটে। রক্ষণের ভুল সামলাতে গিয়ে জুভেন্টাস গোলকিপার উল্টো বল ফেলে দেন কালিদু কুলিবালির সামনে। বাকি কাজটা নাপোলি অধিনায়ক বুঝে নিয়েছেন।

default-image

ইংলিশ লিগে দারুণ ফর্মে থাকা চেলসি আজও দাপট দেখিয়ে জিতেছে। অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ১৫ মিনিটেই দলকে এগিয়ে দিয়েছেন রোমেলু লুকাকু। ৪৯ মিনিটে ব্যবধান বাড়িয়েছেন মাতেও কোভাচিচ। যোগ করা সময়ে আরেকটি গোল করেছেন লুকাকু। ৩-০ গোলের এই জয়ে গোল ব্যবধানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পেছনে থেকে লিগে দুইয়ে আছে চেলসি।

ওদিকে জার্মানিতে আজ বড় দুই ম্যাচেই জয় পেয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ ও বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। বায়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে ৯ মিনিটে পিছিয়ে পড়েছিল ডর্টমুন্ড। ৩৭ মিনিটে দলকে ম্যাচে ফেরান আর্লিং হরলান্ড। কিন্তু লাভ হয়নি। আবার পিছিয়ে পড়েছিল ডর্টমুন্ড। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে গোল করেন প্যাট্রিক শিক। সেটা ৪৯ মিনিটে ফিরিয়ে দেন ইউলিয়ান ব্রান্ট। ৫৫ মিনিটে আবার লেভারকুসেনের গোল। কিন্তু দিয়াবির সে গোলের বদলা এল ৭১ মিনিটে। গেরেইরোর এনে দেওয়া সমতার সদ্ব্যবহার করেছেন হরলান্ড। ৭১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে জিতিয়েছেন।

পরের ম্যাচে এতটা নাটক দেখা যায়নি। জার্মান চ্যাম্পিয়নদের আক্রমণভাগে রবার্ট লেভানডফস্কি, জামাল মুসিয়ালা ও লেরয় সানে ৫৪ মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে বসেন। ৫৮ মিনিটে লাইপজিগের লাইমার গোল করলেও ম্যাচের ভাগ্য আর বদলায়নি। বরং যোগ করা সময়ে ৪-১ করেছেন চুপো মোটিং।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন