'মেসির চোট নিয়ে ভয় নেই'

বিজ্ঞাপন
default-image

পরের রাউন্ডে বার্সেলোনা উঠতে পারবে কি না, সেটা নিয়ে যতটুকু সংশয় ছিল, তা এক ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়েছেন লিওনেল মেসি। প্রথমার্ধের মধ্যেই। ম্যাচ শেষে বিজয়ীর হাসি হেসেছে বার্সেলোনা, ৩-১ গোলে জিতেছে তাঁরা। তবু ম্যাচ শেষে বার্সার সমর্থকদের সঙ্গী হয়েছিল সংশয়, চিন্তা। দলের সবচেয়ে বড় তারকা প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার একটু আগেই চোটে পড়ে মাঠে গড়াগড়ি খাচ্ছিলেন যে!

ঘটনাটা প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট আগের। নিজেদের ডি-বক্সে বল দখলে এনে আক্রমণভাগের দিকে ডান পায়ের উড়ন্ত ক্রস করতে যাচ্ছিলেন নাপোলির সেনেগালের ডিফেন্ডার কালিদু কুলিবালি। ঘুণাক্ষরেও ভেবে দেখেননি, পেছনে কেউ থাকতে পারেন যে। অথচ পেছন থেকেই বাঁ পা বাড়িয়ে দিয়ে কুলিবালির পা থেকে বলের দখল নিতে চলে আসেন মেসি, ততক্ষণে কুলিবালির শট নেওয়ার উদ্দেশ্যে লাথি দেওয়া হয়ে গেছে। কিন্তু লাথিটা বলে পড়েনি, পড়েছে মেসির বাঁ পায়ের পেশিতে। বল তাঁর আগেই মেসি সরিয়ে দিয়েছিলেন। ফলে মাটিতে পড়ে কোঁকাতে থাকেন মেসি। ওদিকে বলের জায়গায় পায়ে লাথি দেওয়া কুলিবালিও ব্যথার কারণে মাটিতে পরে যান।

যেভাবে মেসি কাতরাচ্ছিলেন, টিভি স্ক্রিনে চোখ লাগিয়ে বসে থাকা বিশ্বজোড়া বার্সা সমর্থকদের হার্টবিট মিস না হয়ে যায়-ই না! শেষ কবে মেসি ব্যথা পেয়ে মাঠে এতক্ষণ শুয়ে ছিলেন? শুরু হয়ে যায় গবেষণা। পরে সমর্থকদের স্বস্তি দিয়ে মেসি পুরো ম্যাচটাই খেলেছেন। খেললেও, একটা সন্দেহ ছিলই। মেসি কী ব্যথা নিয়ে খেলছেন? যদি ব্যথা নিয়ে খেলেন তাহলে কোয়ার্টার ফাইনালের আগ দিয়ে এই ব্যথাটা আবার বেড়ে যাবে না তো? কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সেলোনা মুখোমুখি হবে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে। সে ম্যাচে মেসি না থাকা মানে ম্যাচ শুরুর আগেই যোজন-যোজন পিছিয়ে থাকবে কাতালানরা।

ম্যাচ শেষে সমর্থকদের এ সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছেন বার্সা কোচ কিকে সেতিয়েন। বায়ার্ন ম্যাচে অবশ্যই মেসিকে পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি, ‘মেসিকে আমার কাছে বেশ ভালোই মনে হলো। ও সুস্থ আছে। জানি, খুব বাজেভাবে ব্যথা পেয়েছে ও, কিন্তু আমার মনে হয় না এর চেয়ে বেশি কিছু সমস্যা হয়েছে ওর পায়ে। ওর পায়ে চিকিৎসা করা হবে, তবে আমার মনে হয় না এটা এমন কোনো চোট যার জন্য আমাদের সমস্যায় পড়তে হবে।’

আগামী ১৫ তারিখ বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে কোয়ার্টারের লড়াইয়ে মাঠে নামবে বার্সেলোনা। ম্যাচটি হবে পর্তুগালের লিসবনে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন