বিজ্ঞাপন

মেসির কথা জিজ্ঞেস করতেই ভ্যালেন্সিয়ার সাবেক এ ফুটবলার জানালেন, ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলারটির খোলা মনের কথা। মেসিকে আদর্শ নেতা বানিয়েছে এই খোলা মনই—মনে করেন রদ্রিগো, ‘তাঁর সঙ্গে সব ভাগ করে নিলেই বুঝতে পারবেন কতটা খোলা মনের অধিকারী।, কতটা স্বচ্ছ। তার ব্যাপারে কী মনে করেন, সেটা না বলে তার সন্তানদের খোঁজ খবর নিতে ইচ্ছে করবে। আপনি তাঁকে ভ্যালেন্সিয়া-বার্সেলোনা ম্যাচের সেই বুট দিয়ে মাড়ানো কাণ্ড মনে করিয়ে দিতে পারবে। মেসি এমন একজন, তিনি যুদ্ধে যাওয়ার কথা বললেও যাওয়া যায়।’

জাতীয় দলে মেসির ভূমিকাটাও বোঝালেন রদ্রিগো। দলের বাকি খেলোয়াড়দের কাছে প্রত্যাশা থাকে, যাঁর যা দায়িত্ব সেটা পালন করতে হয়নি। মেসি এদিক থেকে ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাঁকে ঘিরেই আবর্তিত হয় দলের খেলা। রদ্রিগো বলেন, ‘মূল ব্যাপার হলো (দলের) সবাই জানে কার কি ভূমিকা। শিরোনাম হওয়ার ভাবনাটা কারও মাথায় থাকে না। একমাত্র মেসিই ধরাছোঁয়ার বাইরে। বাকিদের যার যা কাজ শুধু সেটুকু পালন করে যায়।’

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে আগামী ৮ ও ১৩ অক্টোবর যথাক্রমে ইকুয়েডর ও বলিভিয়ার বিপক্ষে লড়বে আর্জেন্টিনা। এ দুটি ম্যাচ সামনে রেখে আগেই দল ঘোষণা করেছেন কোচ লিওনেল স্কালোনি। মেসি এ দুই ম্যাচ খেলতে পারবেন কি না সংশয় ছিল। গত বছর কোপা আমেরিকায় তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় একটি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে নিষিদ্ধ হন মেসি। পরে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি (এএফএ) ক্লদিও তাপিয়া জানান, মেসির শাস্তির জন্য নির্ধারিত আইনি সময়সীমা পার হয়ে যাওয়ায় বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে তাঁর আর কোনো সমস্যা নেই। ফলে মেসিকে নিয়েই বাছাইপর্বের ম্যাচে নামবে আকাশি-সাদারা।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন