মেসির স্বদেশিকে পেতে রোনালদোর মুখপাত্রের দ্বারস্থ বার্সেলোনা

লওতারোকে মার্তিনেজকে নিতে চায় বার্সেলোনা।
লওতারোকে মার্তিনেজকে নিতে চায় বার্সেলোনা।ফাইল ছবি, এএফপি
বিজ্ঞাপন

লুইস সুয়ারেজের জায়গায় নতুন একজন স্ট্রাইকার চাইছে বার্সেলোনা, এটা এখন 'ওপেন সিক্রেট'। সুয়ারেজের জায়গায় কাকে আনতে চায় তারা, সেটাও এক রকম 'ওপেন সিক্রেট'। ইন্টার মিলানের আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লওতারো মার্তিনেজকে দলে নেওয়ার জন্য বহুদিন ধরেই তক্কে তক্কে আছে তারা। সুয়ারেজ নিজেও গত বছর সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন, নিজের উত্তরসূরি হিসেবে বার্সার জার্সিতে লওতারোকেই দেখতে চান।

কিন্তু চাইলেই তো আর হয় না। ক্লাবে-ক্লাবে মতৈক্যও হওয়া লাগে খেলোয়াড়ের দাম নিয়ে। আর তাতেই আটকে আছে বার্সা-ইন্টারের আলোচনা। একটা নির্দিষ্ট তারিখ (জুলাই ১৫) পর্যন্ত লওতারোর রিলিজ ক্লজ ছিল ১১ কোটি ইউরো, সে তারিখের আগে বার্সা যদি লওতারোকে কিনতে পারত, ওই দামই পরিশোধ করা লাগত। দাম কমানোর যাবতীয় চেষ্টা করেছে বার্সেলোনা, তবে ইন্টার এক পয়সাও কমাতে রাজি হয়নি। ১৫ জুলাই পার হয়ে যাওয়ার পর আবার রিলিজ ক্লজের শর্তটাও বাতিল হয়ে যায়। এখন আবার নতুন করে আলোচনায় বসা লাগবে বার্সা-ইন্টারের। তখন ১১ কোটি নয়, যত খুশি তত দাম হাঁকাতে পারবে ইন্টার। অর্থাৎ, গোটা পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণ এখন ইন্টারের হাতে।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওদিকে বিভিন্ন কারণে বার্সেলোনাও পুরো ১১ কোটি ইউরো পরিশোধ করার পরিস্থিতিতে নেই। বিভিন্ন ভাবে দাম কমানোর চেষ্টায় আছে তাঁরা। প্রস্তাবিত চুক্তিতে বিভিন্ন খেলোয়াড় ঢুকিয়ে দাম কমাতে চাইছে তাঁরা বহুদিন ধরেই। লাভ হয়নি। নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসেনি ইন্টার। শেষমেশ নিজেরা না পেরে লওতারোকে পাওয়ার জন্য পর্তুগিজ ‘সুপার এজেন্ট’ হোর্হে মেন্দেজের সহায়তা নেওয়ার চিন্তাভাবনা করছে স্প্যানিশ ক্লাবটা।

নামটা পরিচিত ঠেকছে তো? অপরিচিত হওয়ার কিছু নেই। মেন্দেজ যে রোনালদোর মুখপাত্র! রোনালদো ছাড়াও বছরের পর বছর ধরে অনেক খেলোয়াড় ও কোচের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করছেন এই ভদ্রলোক। বহু দলবদল সম্পন্ন হয়েছে এই মুখপাত্রের সরাসরি হস্তক্ষেপে। শেষমেশ নিজের বাড়তি খেলোয়াড়দের বিক্রি করার জন্য এই মেন্দেজের সহায়তা নেওয়ার চিন্তা করছে বার্সেলোনা, এমনটাই জানিয়েছে ইতালিয়ান দৈনিক করিয়েল্লে দেল্লো স্পোর্ত।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দলে যেসব খেলোয়াড় ব্রাত্য হয়ে গেছেন, তাদের বিক্রি করে যা টাকা আসবে, তা দিয়েই লওতারোকে কেনার চেষ্টা করবে বার্সেলোনা, আপাতত পরিকল্পনা এমনটাই। এর মধ্যেই দল ছেড়ে চলে গেছেন ইভান রাকিতিচ। ক্লাব ছাড়তে পারেন আর্তুরো ভিদাল ও লুইস সুয়ারেজও। জুনিয়র ফিরপো, স্যামুয়েল উমতিতি, জ্যাঁ-ক্লাইর তোদিবো, রাফিনহা আলকানতারা, জর্দি আলবারাও যে খুব ভালো অবস্থায় আছেন, তা নয়। ভালো প্রস্তাব পেলেই তাদের বিক্রি করে দেবে বার্সেলোনা। আর এই বিক্রির কাজেই মেন্দেজের সাহায্য চাইছে বার্সা, এমনটাই খবর।

ওদিকে ভিদাল ইন্টারে যোগ দিতে পারেন, এমনটা শোনা যাচ্ছেন। ফিরপোও যেতে পারেন ভিদালের পিছু পিছু। এই দুই খেলোয়াড়কে পেয়ে ইন্টারের যদি মন গলে, তাতে বার্সেলোনারই লাভ!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন